The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

৫জির সঙ্গে কী করোনার কোনো সম্পর্ক রয়েছে?

তুরস্কের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম বিশেষজ্ঞরা অবশ্য বলেছেন, এই দাবি একেবারেই ভিত্তিহীন

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অনেকেই দাবি করেছেন যে, ৫জি প্রযুক্তির কারণে মানুষের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যাওয়ার ফলে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হচ্ছেন?

৫জির সঙ্গে কী করোনার কোনো সম্পর্ক রয়েছে? 1

সংবাদ মাধ্যমের এক খবরে জানা যায়, তুরস্কের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম বিশেষজ্ঞরা অবশ্য বলেছেন, এই দাবি একেবারেই ভিত্তিহীন এক দাবি।

আনাদলু নিউজ অ্যাজেন্সিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে সোশ্যাল মিডিয়া বিশেষজ্ঞ ডেনিজ উনাই বলেছেন, তথ্য দূষণের কারণে সারাবিশ্বে প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাসের বিষয়টি দ্রুত জানাজানি হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, একদিকে সারাবিশ্বের বিজ্ঞানিরা চেষ্টা করছেন করোনা ভাইরাস মোকাবেলা করতে, অন্যদিকে এই সংক্রান্ত ভিত্তিহীন কিছু বিষয়ও মোকাবেলা করতে হচ্ছে। বিশেষ করে ভিত্তিহীন এইসব বিষয়গুলো ছড়িয়ে পড়ছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

ভিত্তিহীন অনেক বিষয়ের মধ্যে ৫জি প্রযুক্তির কারণে করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে যাওয়ার ‘খবর’টিও গুজব। ৫জি প্রযুক্তির ফলে মানুষের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যাওয়ার মতো কোনো তথ্য এখন পর্যন্ত কেও দিতে পারেননি।

ডেনিজ আরও বলেন, ৫জি প্রযুক্তির কারণে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যাওয়া সংক্রান্ত কোনো গবেষণা এ পর্যন্ত হয়নি। শরীরের ওপর কোনো ধরনের ক্ষতিকর প্রভাবও নেই ৫জির। সেই কারণে করোনা ভাইরাস তো বটেই, অন্য কোনো রোগ ছড়ানোর পেছনেও ৫জির কোনো রকম হাত নেই।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...