বিশ্ব শেয়ার বাজারে অ্যাপেলের আইফোন শেয়ারের দর পতন!

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক॥ বিশ্ব স্মার্টফোন কোম্পানী সমূহের শেয়ার মূল্য যেখানে ২০১৩ সালের সেকেন্ড কোয়াটারে ভালোই বৃদ্ধি পেয়েছে সেখানে বিশ্বের শীর্ষ স্মার্টফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান অ্যাপেলের মূল্য অস্বাভাবিক হ্রাস পেয়েছে।


samsung-vs-apple-642x364

আইডিসি এর এক প্রতিবেদনে দেখা গেছে বিশ্ব স্মার্টফোন মার্কেটে অ্যাপেলের শেয়ার বিগত এপ্রিল-জুনে ১৩.১% কমে গিয়েছে এটি ২০১০ সালের পর অ্যাপেলের জন্য রেকর্ড দরপতন।

অপরদিকে স্যামসং স্মার্টফোন বাজারে তাঁদের দাপট ধরে রেখেছে, বিশ্ব স্মার্টফোন বাজারে স্মার্টফোন বিক্রির ৩ ভাগের ১ ভাগ হচ্ছে স্যামসং। এলজি, জেটটিই এবং লিনোভো তাঁদের বিক্রয় বাড়িয়েছে।

গবেষক নীল মাউস্টন বলেন, “ অ্যাপেল অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন বাজারের উপরে ও নিচে দুই দিকেই উঠা নামা করছে। স্যামসং যেখানে স্মার্টফোন বাজারে বিশ্ব জুড়ে তাঁদের বিক্রয় গত বছর ৫৭% করেছে সেখানে অ্যাপেলের মাত্র ২০%।“

গবেষণা প্রতিবেদনে আরও বলা হয় অ্যাপেলের যে কেবল মাত্র বিশ্ব স্মার্ট ফোন বাজারে বিক্রয় হ্রাস পেয়েছে তা নয় বরং স্যামসং, অ্যাপেলকে বিক্রয়ের দিক দিয়ে ছাড়িয়ে গেছে অনেক দূর। ২০১৩ এর সেকেন্ড কোয়াটারে স্যামসং এর মোবাইল বিক্রয়ে লাভ ৫.২ বিলিয়ন ডলার অপর দিকে অ্যাপেলের ৪.৬ বিলিয়ন ডলার! কিন্তু অ্যাপেল বিগত চার বছর ধরে বিশ্বের ১ নাম্বার লাভজনক মোবাইল প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান ছিল।

অ্যামেরিকার বাজারে অ্যাপেলের আইফোনের বাজার কমে যাওয়ার প্রধান কারণ হিসেবে দেখা হচ্ছে আইফোন ৫ নিয়ে অ্যাপেলের নিরস মার্কেটিং। আপর দিকে স্যামসং এই সময় তাঁদের বিক্রয় বাজার আরও শক্তিশালী করেছে।

মাউস্টন বলেন, “অ্যাপলকে এখন তাঁদের জনপ্রিয়তা আগের অবস্থায় নিতে হলে আরও বেশী মডেলের কম দামে আইফোন বাজারে আনতে হবে।“

আইডিসি এর গবেষক রামন এল লামাস বলেন, “আমরা আশা করছি এবছর সেপ্টেম্বর বা অক্টোবরের দিকে অ্যাপল তাঁদের নতুন মডেলের আরও স্মার্টফোন বাজারে আনবে এবং তারা আবার স্মার্টফোন বাজারে আগের অবস্থানে ফিরে যাবে।“

সূত্রঃ টাইমস অফ ইন্ডিয়া।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...