The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

ফেসবুকের রঙ কেনো নীল? ফেসবুক সম্পর্কে কিছু অজানা তথ্য

সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমটি আমাদের জীবনটাকে অনেক বেশি আধুনিক করে তুলেছে

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ বর্তমানে ফেসবুক মানুষের কাছে নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের মতোই। ফেসবুক ছাড়া এখন যেনো এক মুহূর্ত চলে না। ফেসবুকের নীল রং নিয়ে অনেকের প্রশ্ন রয়েছে। কেনো এর রং নীল? আজ জেনে নিন ফেসবুক সম্পর্কে কিছু অজানা তথ্য।

ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গ। যিনি ফেসবুকে তার ব্যবহারকারীদের জন্য একেক রকমের ফিচার নিয়ে হাজির হতে থাকেন। তবে অনেকের মনেই প্রশ্ন আসতে পারে যে, ফেসবুকের রঙ কেনো নীল? আসুন জেনে নেই বিষয়টি।

কখনই কী ভাবেননি যে ফেসবুকের রঙটি নীল কেনো হলো, অন্য কোনো রঙ কেনো হলো না? এর মূল কারইণ হলো, ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গ একজন বর্ণান্ধ। তিনি লাল-সবুজ রঙ পার্থক্যই করতে পারেন না। তাইতো কোনো সুনির্দিষ্ট কারণে ফেসবুকের রং নীল দেওয়া হয়নি।

আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্টটি কী সুরক্ষিত?

ফেসবুকের অ্যাকাউন্ট হ্যাক হওয়ার ঘটনা মাঝে মধ্যেই ঘটে থাকে। অনেকেই এর ভুক্তভোগীও বটে। তবে আপনি জানেন কী, প্রতিদিন কতোবার আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট হ্যাক করার চেষ্টা করা হয়ে থাকে? প্রতিদিন গড়ে প্রায় ৬,০০,০০০ বার অ্যাকাউন্ট হ্যাক করার চেষ্টা করা হয়ে থাকে!

বিচ্ছেদের মূলেই ফেসবুক

সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমটি আমাদের জীবনটাকে অনেক বেশি আধুনিক করে তুলেছে। ফেসবুকের কল্যাণে আমরা আমাদের অনেক প্রিয় মানুষকে যেমন খুঁজে পেয়েছি। ঠিক তেমনি আপনি জানেন কী ফেসবুক অনেক বিচ্ছেদের কারণ? ব্রিটিশ লিগ্যাল সার্ভিসের একটি জরীপে দেখা যায় যে, প্রতি ৩টি সম্পর্কচ্ছেদের মধ্যে ১টির বিচ্ছেদের কারণ হলো এই ফেইসবুক!

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...