The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

ডব্লিউএইচও প্রধান বলেছেন এটিই শেষ মহামারি নয়

পরবর্তী মহামারির জন্য বিশ্ববাসীকে ভালোভাবে প্রস্তুতি নিয়ে রাখতে সতর্ক করলেন

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ করোনার কারণে পুরো বিশ্ব পর্যুদস্তু। তারপরও একের পর এক হতাশাজনক মনোভাব দেখাচ্ছেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) প্রধান ড. টেড্রোস আডানোম গ্রেব্রিয়াসিস।

ডব্লিউএইচও প্রধান বলেছেন এটিই শেষ মহামারি নয় 1

এবার তিনি পরবর্তী মহামারির জন্য বিশ্ববাসীকে ভালোভাবে প্রস্তুতি নিয়ে রাখতে সতর্ক করলেন। জনস্বাস্থ্যকে সব ধরণের স্থিতিশীলতার ভিত্তি আখ্যা দিয়ে তিনি এই খাতে আরও বেশি বেশি করে বিনিয়োগ করতে দুনিয়ার সরকারগুলোর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

৭ সেপ্টেম্বর জেনেভায় এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি আরও বলেন, ‘এটিই শেষ মহামারি নয়।’ বিবিসির প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা যায়।

জেনেভায় ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে ডব্লিউএইচও প্রধান ড. টেড্রোস আডানোম গ্রেব্রিয়াসিস বলেছেন যে, ‘ইতিহাস আমাদের শিক্ষা দিয়েছে প্রাদুর্ভাব ও মহামারি জীবনের অংশ। তবে পরবর্তী মহামারি আসার আগে দুনিয়াকে অবশ্যই সেইভাবে প্রস্তুত থাকতে হবে- এবারের চেয়েও বেশি প্রস্তুতি থাকতেই হবে।’

জাতিসংঘের বিশেষায়িত সংস্থাটির প্রধান ড. টেড্রোস আরও বলেন, ‘কোভিড-১৯ (করোনা ভাইরাসে সৃষ্ট রোগ) আমাদের সবাইকে অনেক বড় শিক্ষা দিয়েছে। এর একটিই হলো স্বাস্থ্য কোনও বিলাসিতার বিষয় নয় যে যাদের সামর্থ্য রয়েছে তারাই কেবল এই সেবা পাবেন, বরং এটি মানুষের প্রয়োজন ও অধিকার।’ তিনি আরও বলেন, ‘সামাজিক, অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিক স্থিতিশীলতার মৌলিক ভিত্তিই হলো জনস্বাস্থ্য।’ স্বাস্থ্য ব্যবস্থা শক্তিশালী করা ছাড়া কোনও দেশই সংক্রামক রোগের প্রাদুর্ভাব কার্যকরভাবে মোকাবিলা করতে পারবে না বলেও জানিয়েছেন তিনি।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর

অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

Loading...