The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

আবারও মঙ্গল গ্রহে ৩টি হ্রদের সন্ধান!

দু’বছর আগে মঙ্গল গ্রহের দক্ষিণ মেরুতে এক বিরাট লবণাক্ত পানির হ্রদের সন্ধান পাওয়া যায়

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ মঙ্গলগ্রহের মাটির নিচে আবারও ৩টি হ্রদ পেয়েছেন মার্কিন মহাকাশ সংস্থা নাসার বিজ্ঞানীরা। হ্রদগুলো বরফে আচ্ছন্ন মাটির নিচে চাপা পড়ে রয়েছে বলে জানিয়েছিলেন বিজ্ঞানীরা।

আবারও মঙ্গল গ্রহে ৩টি হ্রদের সন্ধান! 1

দু’বছর আগে মঙ্গল গ্রহের দক্ষিণ মেরুতে এক বিরাট লবণাক্ত পানির হ্রদের সন্ধান পাওয়া যায়। সায়েন্স ম্যাগাজিন নেচার অ্যাস্ট্রোনমিতে প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২০১৮ তে ইউরোপীয় স্পেস এজেন্সি-র স্পেসক্র্যাফট মার্স এক্সপ্রেস মঙ্গল গ্রহে এমন একটি স্থান আবিষ্কার করেছে যেখানে বরফের নিচে লবণাক্ত পানির হ্রদ রয়েছে বলে দাবি করা হয়েছে। ২০১২ হতে ২০১৫ পর্যন্ত, এই হ্রদের বিষয়ে নিশ্চিত হতে স্যাটেলাইট প্রায় ২৯ বার ওই এলাকা দিয়ে ঘুরেছে আবার ছবিও তুলেছে। এর থেকে জানা গেছে যে, ওই এলাকায় এমন আরও অনেক হ্রদ রয়েছে।

সায়েন্স ম্যাগাজিন নেচার অ্যাস্ট্রোনমিতে প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে যে, মঙ্গল গ্রহে পানি তরল অবস্থায় পাওয়া যাওয়ার পূর্ণ সম্ভাবনাও রয়েছে। ২০১৮ সালে যে হ্রদটি মঙ্গল গ্রহের দক্ষিণে আবিষ্কার হয়েছিলো, সেটি মূলত বরফ দিয়ে আচ্ছাদিত। এই হ্রদটি প্রায় ২০ কিলোমিটার প্রশস্ত। এ পর্যন্ত মঙ্গল গ্রহে পাওয়া সবচেয়ে বৃহত্তম হ্রদই হলো এটি।

এই বিষয়ে রোম বিশ্ববিদ্যালয়ের জ্যোতির্বিজ্ঞানী আলাইনা পেটিনেল্লি জানিয়েছেন, তারা দু’বছর পূর্বে আবিষ্কৃত হ্রদের চারপাশে আরও ৩টি হ্রদ আবিষ্কার করেছেন। তিনি জানিয়েছেন যে, মঙ্গলগ্রহে পানি পাওয়ার সম্ভাবনাও রয়েছে।

পূর্বে মঙ্গলগ্রহকে একটি পানিহীন গ্রহই ভাবা হতো। তবে বর্তমানে সেই ভুল ধীরে ধীরে ভাঙতে শুরু করেছে। অবশ্য বিজ্ঞানীরা বহুদিন আগেই জানিয়েছিলেন যে, মঙ্গলগ্রহে একসময় প্রচুর পরিমাণে পানিও প্রবাহিত হতো। ৩ বিলিয়ন বছর পূর্বে জলবায়ুতে বড় ধরনের পরিবর্তনের কারণে মঙ্গল গ্রহের সমস্ত রূপ পরিবর্তিত হয়ে যায় বলে মত দিয়েছেন বিজ্ঞানীরা।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর

অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...