The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

ওয়ালটন নিয়ে এলো নতুন গেমিং ল্যাপটপ

ওয়ালটনের এই গেমিং ল্যাপটপে ব্যবহার করা হয়েছে দশম প্রজন্মের ইন্টেল প্রসেসর, এনভিডিয়া এর ৪ গিগাবাইট জিফোর্সজিটিএক্স ১৬৫০ গ্রাফিক্স কার্ড, ১৬ জিবি র‌্যাম এবং ৫১২ গিগাবাইট এনভিএমই সলিড স্টেট ড্রাইভসহ অসংখ্য অত্যাধুনিক ফিচার

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ দেশীয় প্রযুক্তি পণ্য নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন নতুন মডেলের হাই কনফিগারেশনের গেমিং ল্যাপটপ বাজারে আনলো।

ওয়ালটন নিয়ে এলো নতুন গেমিং ল্যাপটপ 1

ওয়ালটনের এই গেমিং ল্যাপটপে ব্যবহার করা হয়েছে দশম প্রজন্মের ইন্টেল প্রসেসর, এনভিডিয়া এর ৪ গিগাবাইট জিফোর্সজিটিএক্স ১৬৫০ গ্রাফিক্স কার্ড, ১৬ জিবি র‌্যাম এবং ৫১২ গিগাবাইট এনভিএমই সলিড স্টেট ড্রাইভসহ অসংখ্য অত্যাধুনিক ফিচারও রয়েছে।

কেরোন্ডা জিএক্সসেভেনটেনজি প্রো মডেলের ল্যাপটপটির দাম রাখা হয়েছে ১ লক্ষ ১২ হাজার ৫০০ টাকা। নগদ মূল্য ছাড়াও কিস্তিতেও কেনা যাবে এই ল্যাপটপটি। এমনকি, পুরনো যেকোনো ব্র্যান্ডের ল্যাপটপ এবং ডেস্কটপের সঙ্গেও থাকছে একচেঞ্জ করে নেওয়ার সুবিধা। ই-প্লাজা বা দারাজ থেকে অনলাইনে অর্ডার করলে থাকছে বিশেষ মূল্যছাড়ও।

এই বিষয়ে ওয়ালটন কম্পিউটারের সিইও মো. লিয়াকত আলী বলেছেন, গেমিং ল্যাপটপ সাধারণত হাই কনফিগারেশনের হয়ে থাকে। এতে অন্যান্য সাধারণ ল্যাপটপের চেয়ে দামটাও তাই একটু বেশিই হয়। যে কারণে ইচ্ছে থাকলেও অনেক ক্রেতার জন্য গেমিং ল্যাপটপ কেনা সম্ভব হয়ে ওঠে না। এই বিষয়গুলো বিবেচনা করেই সাশ্রয়ী মূল্যে সর্বাধুনিক ফিচারের নতুন মডেলের গেমিং ল্যাপটপটি বাজারে ছাড়া হলো।

তিনি আরও জানিয়েছেন, বাজারে আসা নতুন এই ল্যাপটপে ব্যবহার করা হয়েছে ১৫.৬ ই র ফুল এইচডি ম্যাট আইপিএস এলইডি ব্যাকলিট ডিসপ্লে। এর রিফ্রেশ রেট ১৪৪ হার্জ হওয়ায় গেমারদের কাছে বিশেষ আকর্ষণীয় বলা যায়। নতুন এই ল্যাপটপটির পর্দার রেজ্যুলেশন ১৯২০ বাই ১০৮০ পিক্সেল। যে কারণে এতে স্পষ্ট এবং প্রাণবন্ত ছবি দেখার অভিজ্ঞতাও পাওয়া যাবে। এতে গেম খেলা, কাজ করা কিংবা মুভি দেখতে পাওয়া যাবে অসাধারণ এক অনুভূতি।

এই ল্যাপটপটির উচ্চগতি নিশ্চিত করতে রয়েছে ইন্টেলের দশম প্রজন্মের ২.৬ গিগাহার্টস ক্লকরেটের কোর আই সেভেন ১০৭৫০এইচ ৬-কোর প্রসেসরও। মেমোরি ডিভাইস হিসেবে আরও রয়েছে ১৬ গিগাবাইট ডিডিআর৪ র‌্যাম যা ৬৪ জিবি পর্যন্ত বাড়ানোর সুযোগ থাকছে। প্রয়োজনীয় গেম, সফটওয়্যার, ডকুমেন্ট, মুভি ইত্যাদি সংরক্ষণের জন্য রয়েছে এনভিএমই ফর্ম ফ্যাক্টরের ৫১২ গিগাবাইট সলিড স্টেট ড্রাইভও। দীর্ঘক্ষণ পাওয়ার ব্যাকআপের নিশ্চয়তায় নতুন এই ল্যাপটপে ব্যবহৃত হয়েছে শক্তিশালী ৪ সেলের স্মার্ট লিথিয়াম-আয়ন ব্যাটারি যা টানা প্রায় ৮ ঘণ্টা ব্যাটারি ব্যাক-আপ দিতে পারবে।

জানা গেছে, অসংখ্য ফিচার থাকা সত্ত্বেও আকর্ষণীয় ডিজাইনের ল্যাপটপটি খুবই হালকা। ব্যাটারিসহ ওজন মাত্র ২ কেজি। যার ফলে যে কোনো স্থানে খুব সহজেই বহন করা যাবে নতুন এই ল্যাপটপটি। কেরোন্ডা সিরিজের এই ল্যাপটপে গ্রাহকরা ওয়ালটন সার্ভিস সেন্টার হতে ২ বছরের বিক্রয়োত্তর সেবা পাবেন।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর

অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...