The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

এবার পাওয়া গেছে ৩ হাজার বছর পূর্বের সোনার মাস্ক!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ করোনা মহামারির কারণে মাস্কের ব্যবহার সর্বত্র। বিশ্বের প্রায় সব দেশেই মানুষের মুখে মুখে দেখা যাচ্ছে মাস্ক। তবে এই মাস্ক যে বহু পূর্বের শতাব্দিতে ব্যবহার হচ্ছে তার প্রমাণ পাওয়া গেছে। এবার উদ্ধার করা হলো ৩ হাজার বছর পূর্বের সোনার মাস্ক!

এবার পাওয়া গেছে ৩ হাজার বছর পূর্বের সোনার মাস্ক! 1

এবার সত্যিই সন্ধান পাওয়া গেলো ৩ হাজার বছর পূর্বের একটি সোনার মাস্ক। এটি ব্যবহার করতেন চীনের অধিবাসীরা। বিভিন্ন জাকজমক অনষ্ঠানে তারা সোনার তৈরি মাস্ক পড়তেন।

চীনের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় সিচুয়ান প্রদেশের প্রত্নতাত্ত্বিক স্থান সম্প্রতি খনন করছিলেন গবেষকরা। চেংদু’র ‘সংক্সিংদুই’ নামক স্থানটি খননকাজের সময় সেখান থেকে পাঁচশোর বেশি প্রাচীন নিদর্শন খুঁজে পান গবেষকরা। এর মধ্যে ৩ হাজার বছর পূর্বের সোনার তৈরি একটি মাস্ক সবার দৃষ্টি কাড়তে সমর্থ হয়েছে।

জানা যায়, এই ‘সংক্সিংদুই’ অঞ্চলটি ৩১৬ খ্রিষ্টপূর্বাব্দ পর্যন্ত ‘শু’ রাজ্যর অন্তর্গত ছিল। পশ্চিম সিচুয়ান উপত্যকায় হান নদীর অববাহিকা জুড়ে বিস্তৃত ছিল এই রাজ্যটি। শিল্পকর্মের জন্য খ্যাতিও ছিল এই রাজ্যটির।

চীনের ন্যাশনাল কালচারাল হেরিটেজ অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের তথ্য অনুযায়ী জানা যায়, প্রত্নতত্ত্ববিদদের খুঁজে পাওয়া সোনার মাস্কটি ৩ হাজার বছরের পুরোনো। ওই মাস্কটির ৮৪ শতাংশই সোনা। এটির ওজন ২৮০ গ্রাম। প্রত্নতত্ত্ববিদরা বলছেন, ‘ওই সময় মানুষ বিভিন্ন অনুষ্ঠানে সোনা দিয়ে বানানো এমন ধরনের মাস্ক পরতেন।’

উল্লেখ্য, গত শতকের বিশের দশকের পর হতে এখন পর্যন্ত এই অঞ্চল হতে ৫০ হাজারেরও বেশি প্রত্ন নিদর্শন খুঁজে পাওয়া যায়। ইতিপূর্বে ১৯৮৬ সালেও এখানে খননকাজ চালিয়ে ব্রোঞ্জের তৈরি মাস্ক খুঁজে পান প্রত্নতত্ত্ববিদরা।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর

অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

Loading...