The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

ওয়ালটন স্মার্টফোনের প্রি-বুকে ২০০০ টাকা ছাড়!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ সেরা কনফিগারেশনের সাশ্রয়ী দামে স্মার্টফোন দিয়ে প্রযুক্তিপ্রেমীদের মন জয় করছে দেশীয় প্রযুক্তি পণ্য প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন। এবার ওয়ালটন ফোনের প্রি-বুকে দেওয়া হচ্চে ২০০০ টাকা ছাড়!

ওয়ালটন স্মার্টফোনের প্রি-বুকে ২০০০ টাকা ছাড়! 1

বাংলাদেশে নিজস্ব কারখানায় তৈরি সর্বাধুনিক ফিচারসমৃদ্ধ ওয়ালটন ফোনের প্রতি আস্থা রাখছেন দেশের ক্রেতারা। সেইসঙ্গে ওয়ালটন ফোনে থাকছে নানা সুবিধা। যার ধারাবাহিকতায় নতুন মডেলের আরেকটি মিড রেঞ্জের স্মার্টফোন বাজারে ছাড়ার ঘোষণা দিয়েছে ওয়ালটন। যাতে ব্যবহৃত হয়েছে বিশাল ডিসপ্লে, শক্তিশালী র‌্যাম-রম এবং ব্যাটারি, ট্রিপল ব্যাক ক্যামেরাসহ আকর্ষণীয় নানা ফিচার। নতুন এই স্মার্টফোনটির প্রি-বুকে থাকছে বিশেষ মূল্যছাড়ও!

জানানো হয়েছে, ‘প্রিমো এনফাইভ’ মডেলের ওই ফোনটির দাম ১২,৪৯৯ টাকা। তবে প্রি-বুক দেওয়ায় ক্রেতাদের জন্য থাকছে ২,০০০ টাকার মূল্যছাড়। যে কারণে এর দাম পড়ছে মাত্র ১০,৪৯৯ টাকা। করোনা মহামারির মধ্যে ঘরে বসেই ওয়ালটনের নিজস্ব অনলাইন শপ ই-প্লাজা হতে প্রি-বুক দেওয়া যাচ্ছে। পাশাপাশি সীমিত সময়ের জন্য ওয়ালটন প্লাজা, মোবাইল ব্র্যান্ড এবং রিটেইল আউটলেট থেকেও প্রি-বুক দিয়ে ২,০০০ টাকা মূল্যছাড় পাবেন গ্রাহকরা।

ওয়ালটন সূত্রে জানানো হয়েছে, নজরকাড়া ডিজাইনের স্মার্টফোনটি স্কারলেট রেড, ব্ল্যাক পার্ল, স্পেস ব্লু, টিয়াল গ্রিন এই ৪টি আকর্ষণীয় রঙে বাজারে আসবে। স্মার্টফোনটিতে ব্যবহৃত হয়েছে ৬.৮২ ইঞ্চির ২০.৯ রেশিওর ভি-ড্রপ ডিসপ্লে। এইচডি প্লাস পর্দার রেজ্যুলেশন হলো ১৬০০ বাই ৭২০ পিক্সেল। আইপিএস ইনসেল প্রযুক্তির ক্যাপাসিটিভ টাচ স্ক্রিনের এই স্মার্টফোনটিতে রয়েছে ধূলা এবং আঁচররোধী ২.৫ডি কার্ভড গ্লাস। যে কারণে বিভিন্ন অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার ও ভিডিও দেখা, গেম খেলা, বই পড়া কিংবা ইন্টারনেট ব্রাউজিংয়ে অনন্য অভিজ্ঞতা পাবেন এর গ্রাহকরা।

এই স্মার্টফোনটি অ্যান্ড্রয়েড ১১ অপারেটিং সিস্টেমে পরিচালিত। যে কারণে এই স্মার্টফোনের কার্যক্ষমতা এবং গতি হবে অনেক বেশি। এটিতে ব্যবহৃত হয়েছে ২.০ গিগাহার্টজ গতির ১২ ন্যানোমিটারের হেলিও জি২৫ এসওসি অক্টাকোর প্রসেসর। যাতে আরও রয়েছে হাইপারএঞ্জিন প্রযুক্তি। এটির সঙ্গে ৪ জিবি র‌্যাম ও পাওয়ার ভিআর জিই৮৩২০ গ্রাফিক্স থাকায় বিভিন্ন অ্যাপস ব্যবহার, ইন্টারনেট ব্রাউজিং, থ্রিডি গেমিং ও দ্রুত ভিডিও লোড এবং ল্যাগ-ফ্রি ভিডিও স্ট্রিমিং সুবিধাও পাওয়া যাবে। এই স্মার্টফোনটির অভ্যন্তরীণ মেমোরি ৬৪ গিগাবাইটের। যা মাইক্রো এসডি কার্ডের মাধ্যমে ২৫৬ গিগাবাইট পর্যন্ত বাড়ানো সম্ভব। এই স্মার্টফোনটিতে দুর্দান্ত পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য ব্যবহৃত হয়েছে ৫৫০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের লিথিয়াম পলিমার ব্যাটারি।

বাংলাদেশে তৈরি এই স্মার্টফোনে আরও রয়েছে বিশেষ রিপ্লেসমেন্ট সুবিধা। স্মার্টফোন কেনার ৩০ দিনের মধ্যে কোনো ত্রুটি ধরা পড়লে এই স্মার্টফোনটি পাল্টে ক্রেতাকে নতুন আরেকটি ফোন দেওয়া হবে। তাছাড়াও ১০১ দিনের মধ্যে প্রায়োরিটির বেসিসে ৪৮ ঘন্টার মধ্যে ক্রেতা বিক্রয়োত্তর সেবাও পাবেন। এই স্মার্টফোনে এক বছরের ও ব্যাটারি এবং চার্জারে ৬ মাসের বিক্রয়োত্তর সেবা তো রয়েছেই।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...