The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

যমজ বোনকে বাঁচাতে কুমিরকে ঘুষি! [ভিডিও]

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ বোনকে বাঁচাতে কেও এমন সাহসী ভূমিকা রাখতে পারেন তা ভাবা যায় না। ২৮ বছর বয়সী ব্রিটিশ তরুণী জর্জিয়া লরি আক্ষরিক অর্থেই কুমিরের মুখ হতে বাঁচিয়ে ফেরালেন যমজ বোন মেলিসা লরিকে!

যমজ বোনকে বাঁচাতে কুমিরকে ঘুষি! [ভিডিও] 1

এনডিটিভি এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে যে, মেক্সিকোতে ছুটি কাটানোর সময় জমজ দুই বোন পুয়ের্তো এস্কোনিডোর এক সৈকতে সাঁতার কাটছিলেন। জর্জিয়া হঠাৎ দেখতে পান মেলিসা পানিতে তলিয়ে যাচ্ছে। তখন মেলিসাকে নৌকায় নিয়ে ফেরার সময় একটি কুমির তাদের আক্রমণ করে।

এই সময় বোনকে বাঁচাতে জর্জিয়া কুমিরটির মাথায় ক্রমাগত ঘুষি মারতে থাকলে কুমিরটি শেষ পর্যন্ত চলে যেতে বাধ্য হয়। জর্জিয়া তখন মেলিসাকে নৌকার তুলে নেন। তারপরও কুমিরটি আরও অন্তত তিনবার তাদের আক্রমণ চালানোর চেষ্টা করে।

যদিও মেলিসার অবস্থা আশঙ্কাজনক। তার হাতের কব্জিতে আঘাত লেগেছে, অভ্যন্তরীণ রক্তক্ষরণ হয়েছে ও ফুসফুসেও পানি ঢুকেছে। অপরদিকে কুমিরকে ঘুষি দেওয়ার সময় জর্জিয়াও হাতে আঘাত পান বলে জানিয়েছেন।

সংবাদ মাধ্যমকে তাদের বাবা শন লরি জানিয়েছেন যে, ডুবুরি হিসেবে জর্জিয়ার অভিজ্ঞতার কারণেই তারা এমন আক্রমণকে প্রতিহত করে শেষ পর্যন্ত বেঁচে ফিরতে পেরেছেন।

তিনি আরও বলেন, ‘হ্রদের গভীরে বায়োলুমিনসেন্ট পানিতে সাঁতার কাটছিলো মেলিসা এবং জর্জিয়া। হঠাৎ মেলিসার চিৎকারের শব্দ শোনেন জর্জিয়া। পানির নিচে তাকে খুঁজে না পেয়ে উপরে ভেসে উঠলে সেখানে মেলিসাকে উল্টো হয়ে ভাসতে দেখেন জর্জিয়া।

‘বোনকে নিয়ে নৌকার দিকে এগিয়ে যাওয়ার সময় কুমিরটি আবারও আক্রমণ করে তাদের ওপর। সেই সময়ও আবার সেটিকে মেরে তাড়ায় জর্জিয়া।’ এভাবেই তিনবার কুমিরের সঙ্গে মারামারি করে মেলিসাকে বাঁচিয়েছেন তারই জমজ বোন।

মেক্সিকোতে প্রাণীকল্যাণ স্বেচ্ছাসেবী হিসেবে কর্মরত মেলিসা এবং জর্জিয়া ঘটনার সময় ছুটি কাটাচ্ছিলেন। রোমাঞ্চপ্রেমী দুই বোন ছুটির জন্য বেছে নেন পুয়ের্তো এস্কন্দিদোরকে।

যুক্তরাজ্য হতে যমজের পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছেন যে, যে হোস্টেলে থাকতেন এই দুই বোন, সেখান থেকেই তাদের একজন ট্যুর গাইড ঠিক করে দেওয়া হয়।

বিভিন্ন সময় পর্যটকদের নিষিদ্ধ এবং বিপজ্জনক জায়গায় নিয়ে যাওয়ার কারণে ওই ট্যুর গাইডের বিরুদ্ধেও অভিযোগ রয়েছে। তবে এই বিষয়গুলো জানা ছিল না মেলিসা ও জর্জিয়ার।

তবে এই ঘটনার পরও করোনা ভাইরাস মহামারির কারণে মেক্সিকোতে দুই বোনের কাছে এখনই যেতে পারছেন না তাদের পরিবারের সদস্যরা। তাদের সার্বক্ষণিক তথ্য সরবরাহ এবং সুচিকিৎসা নিশ্চিত করতে সব ধরনের সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছে ব্রিটিশ সরকার।

দেখুন ভিডিওটি

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...