The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

পাঁকা পেঁপে কেনো খাবেন

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ পেঁপে কাঁচা এবং পাঁকা দুই ভাবেই খাওয়া যায়, তবে কাচা অবস্থায় সব্জি ও পাঁকলে ফল হিসেবে খাওয়া যায়। বিশ্বের জনপ্রিয় ফলগুলোর মধ্যে একটি হলো পেঁপে। কেনো খাবেন পাঁকা পেঁপে- সেই বিষয়টি নিয়েই এই প্রতিবেদন।

স্বাদ ও গুনাগুণের কারণেই মানুষের কাছে পেঁপের এতো কদর। এতে প্রাকৃতিক ফাইবার হিসাবে পুষ্টি ও ভিটামিন এ, সি, এবং কে, যেমন নিয়াসিন, পটাসিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম, প্রোটিন রয়েছে। আজ তাহলে জেনে নেওয়া যাক পেঁপের অসাধারণ কিছু উপকারিতা সম্পর্কে।

দৃষ্টিশক্তি রক্ষা করে পেঁপে

অপথ্যালমোলজি আর্কাইভস প্রকাশিত একটি সমীক্ষা অনুযায়ী জানা যায়, প্রতিদিন ৩ বার পেপে খেলে চোখের বয়সজনিত ঝুঁকি অনেকটাই কমে যেতে বাধ্য। বয়স্কদের মধ্যে দৃষ্টি ক্ষতির প্রাথমিক কারণ, প্রতিদিনের খাবারে তুলনামূলকভাবে কম পুষ্টি গ্রহণ করা।
পেঁপে আপনার চোখের জন্য খুবই উপকারী। কারণ এতে রয়েছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ও ভিটামিন এ, সি, ও ই এর উপস্থিতি।

হৃদরোগ থেকে রক্ষা করে পেঁপে

নিয়োমিত পেঁপে খেলে অথেরোস্ক্লেরোসিস ও ডায়াবেটিক এবং হৃদরোগও প্রতিরোধ করে। পেঁপের ভিটামিন এ, সি ও ই, সমূহের এবং শক্তিশালী অ্যান্টিঅক্সিডেন্টস এর চমৎকার উৎসও বটে। এই ৩টি পুষ্টি কোলেস্টেরল প্রতিরোধে সাহায্য করে থাকে, যা হার্ট এটাক এবং স্ট্রোক এর প্রধান কারণ। এছাড়াও পেঁপেতে রয়েছে ফাইবার এর একটি ভাল উৎস, যা উচ্চ কোলেস্টেরলের মাত্রা কমাতে সহায়তা করে থাকে।

হজমে সহায়তা করে পেঁপে

বদ হজমের রোগিদের পাকা পেঁপে খেলে খুবই উপকার পাবেন। পাঁকা পেপে খেলে মুখে রুচি বাড়ে, সেইসঙ্গে খিদে বাড়ে, তাছাড়া পাঁকা পেপে কোষ্ট পরিস্কার করে ও বায়ু নাস করে। পেঁপে অর্শ রোগের ক্ষেত্রেও বেশ উপকারি।

অর্শ ও কৃমিনাশক পেঁপে

কাঁচা পেঁপের আঠা-বীজ কৃমিনাশক। কাঁচা পেঁপের আঠা চিনি কিংবা বাতা্সোর সঙ্গে মিশিয়ে খেলে অর্শ এবং জন্ডিসসহ লিভারের নানা রোগ ভালো হয়। এই আঠা প্রতিদিন সকালে ৫-৭ ফোটা আঠা বাতাসার সঙ্গে মিসিয়ে খেলে অর্শের রক্ত পড়া বন্ধ হয়ে যায়। ব্রন আচিল জিভের ঘায়ে এই আঠা লাগলে খুব উপকার পাওয়া যাবে।

ক্যান্সারের ঝুঁকি কমায় পেঁপে

পেঁপেতে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, ফ্লেভানয়েড, বিটা ক্যারোটিন, লুটেইন, ক্রিপ্টোক্সান্থিন রয়েছে। তাছাড়াও আরও অনেক পুষ্টি উপাদান রয়েছে যেগুলো শরীরের জন্য খুবই উপকারী। ক্যারোটিন ফুসফুস এবং অন্যান্য ক্যান্সারের ঝুঁকিও কমায়।

কোলেস্টেরল কমায় পেঁপে

অন্যান্য ফলের মতোই পেঁপেতে কোনো রকম কোলেস্টেরল নেই। পেঁপেতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার। তাই কোলেস্টেরলের সমস্যায় যারা দুশ্চিন্তায় রয়েছেন তারা প্রতিদিনের খাবার তালিকায় পেঁপে রাখুন।

 

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...