ক্যান্সারকে ক্যান্সার বলতে বারণ বিশেষজ্ঞদের

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক ॥ আমেরিকার ন্যাশনাল ক্যান্সার ইনস্টিটিউটের উপদেষ্টা কমিটির বিজ্ঞানীরা সম্প্রতি আমেরিকান মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের প্রকাশ করা চিকিৎসা বিষয়ক জার্নালে মরণব্যাধি ক্যান্সার বিষয়ক একটি প্রবন্ধ প্রকাশ করেছেন, যা এরই মধ্যে ব্যাপক আলোচনার জন্ম দিয়েছে। ওই প্রবন্ধে বিজ্ঞানীরা রোগীর দেহে ধরা পড়া সকল ক্যান্সারকে ‘ক্যান্সার’ বলে ঘোষণা না দেয়ার পরামর্শ দিয়েছেন। কেবলমাত্র যেসব ক্যান্সার কোষ বা ক্ষত চিকিৎসা করলে মৃত্যুর সম্ভাবনা থাকে, কেবল সেগুলোকেই ক্যান্সার হিসেবে সংজ্ঞায়িত করার পরামর্শ দিয়েছেন তারা।


cancer

আমেরিকার ক্যান্সার বিশেষজ্ঞরা তাদের অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে এই সিদ্ধান্তে পৌঁছেছেন। চিকিৎসক হিসেবে বিভিন্ন সময়ে তারা দেখেছেন যে, বর্ধনশীল নয় এমন নিরীহ গোছের ক্যান্সার কোষ ধরা পড়ার পরেও রোগীরা দেহে অস্ত্রোপচারের জন্য উঠেপড়ে লাগে। ‘ক্যান্সার’ শব্দটাই উদ্বেগ সৃষ্টি করে তাদের অপারেশন রুমে যেতে বাধ্য করে, যদিও বেশিরভাগ সময়েই তাদের আদৌ সেই অস্ত্রোপচারের কোনো দরকারই ছিলো না।

ন্যাশনাল ক্যান্সার ইনস্টিটিউটের উপদেষ্টা কমিটিতে থাকা আমেরিকার শীর্ষস্থানীয় সব ক্যান্সারবিদদের মধ্যে সংগঠনটির প্রধান মেডিকেল অফিসার ডাঃ ওটিস ব্রাউলি বলেন, “১৮৫০ সালে জার্মান প্যাথোলজিস্ট্ররা যে ক্যান্সারের যে শ্রেণীকরণ করেছেন, এখন তাকে আবার ঢেলে সাজানো প্রয়োজন।”

আর তাই তিনি দ্রুত বাড়ছে না বা আদৌ বাড়ছে না এমন ক্যান্সার সৃষ্টিকারী কোষকে ‘ক্যান্সার’ সৃষ্টি হয়েছে না বলে বরং ‘আইডেল’ অর্থাৎ অলস হিসেবে অভিহিত করার পরামর্শ দিয়েছেন। কোষগুলো খুব ধীরে বাড়তে থাকায় এদের নাম ক্যান্সার না দিয়ে ‘আইডেল’ দিয়েছেন বিজ্ঞানীরা।

তথ্যসূত্র: ইউএসএ টুডে

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...