উইন্ডোজ ফোনকে অন্তর্ঘাত করছে গুগল – অভিযোগ মাইক্রোসফটের!

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক॥ কয়েকমাস পূর্বে মাইক্রোসফট প্রস্তুতকৃত উইন্ডোজ ফোনে ইউটিউব অ্যাপ উন্মুক্ত করেন। নীতিমালা ভঙ্গের অভিযোগ এনে গুগল এই অ্যাপ উন্মুক্তকরণের প্রতিবাদ করেন। পরবর্তীতে তিনদিন পূর্বে মাইক্রোসফট পুনরায় অ্যাপটি মুক্তি দেন কিন্তু মজার বিষয় হচ্ছে  গুগল এই অ্যাপটি ব্লক করে দিয়েছেন এবং ফলশ্রুতিতে মাইক্রোসফট গুগলকে অন্তর্ঘাতের অভিযোগে অভিযুক্ত করেছেন।


YouTube Windows Phone 8

এই বছরের মে মাসে মাইক্রোসফট তাদের উইন্ডোজ ফোনের স্টোরে ইউটিউব অ্যাপ উন্মুক্ত যখন করেছিলেন তখন গুগল অভিযোগ করেছিলেন এই অ্যাপ ইউটিউবের নীতিমালা পরিপন্থী। মাইক্রোসফট ইউটিউব অ্যাপের এপিআই এর মাধ্যমে অ্যাপটি প্রস্তুত করেন , গুগুল এই বিষয়ে নীতিমালা ভঙ্গের অভিযোগ করেন।

গত ১৩ই আগস্ট ইউটিউব অ্যাপটি পুনঃপ্রকাশ করার দুই দিন যেতে না যেতেই গুগল পুনরায় ইউটিউব অ্যাপটি ব্লক করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন যা ম্যাইক্রোসফটের কার্যনির্বাহীকদের রাগান্বিত করেছে।

পূর্বে গুগলের সাথে ইউটিউবের নীতিমালা মেনে চলে এরকম ইউটিউব অ্যাপ তৈরি করার সিদ্ধান্ত নেয় মাইক্রোসফট এবং পরবর্তীতে মাইক্রোসফট উইন্ডোজ ফোন থেকে অ্যাপটি সরিয়ে নিলেও সম্প্রতি অ্যাপটি পুনরায় স্টোরে উন্মুক্ত করা হয়। গুগল পুনরায় শর্ত ভঙ্গের অভিযোগ এনে অ্যাপটি ব্লক করে দিয়েছে এবং তারা জানান – সব সুবিধাযুক্ত ইউটিউবের জন্য ফোনের ব্রাউজারে যে আপগ্রেড প্রয়োজন তা মাইক্রোসফট করে নি।

মাইক্রোসফটের কর্পোরেট ভাইস প্রেসিডেন্ট এবং ডেপুটি জেনারেল কাউন্সেল ডেভিড হাওয়ার্ডের বিবৃতি থেকে জানা যায় গুগল মাইক্রোসফটকে অ্যাপটি নতুন কোডিং ল্যাঙ্গুয়েজ এইচটিএমএল৫-এ লিখতে বলেছিলেন । এদিকে এইচটিএমএল ৫ ভিত্তিক ইউটিউব অ্যাপ নির্মাণ করা শুধু প্রযুক্তিগতভাবে কঠিন নয় বরং সময় নষ্টকারীও বলা যায়।

মজার বিষয় হচ্ছে গুগল নিজেও আইফোন এবং অ্যানড্রয়েড অ্যাপ নির্মাণে এইচটিএমএল৫ ভিক্তিক পদ্ধতি ব্যবহার করেনি, কিন্তু আইফোন অথবা অ্যানড্রয়েডের জন্য নির্মিত ইউটিউব অ্যাপ্লিকেশনটি এইচটিএমএল৫ ভিত্তিক তৈরি করার জন্য গুগলের অনুরোধটি ন্যায়বিরুদ্ধ বলা যায়। সুতরাং এটা স্পষ্ট বলা যায় গুগলের অভিযোগ আর কিছু নয় শ্রেফ অজুহাত যা উইন্ডোজ ফোনের সাফল্যের পথে বাঁধা সৃষ্টি ছাড়া কিছু নয়।

মাইক্রোসফট স্পষ্ট করে জানিয়েছেন যেকোন ন্যায়সঙ্গত উদ্বেগ সমাধানের জন্য গুগলের সাথে কাজ করতে ইচ্ছুক তারা এবং একইসাথে তারা গুগলকে অ্যাপ্লিকেশনটি ব্লক না করার অনুরোধ জানিয়েছেন।

তথ্যসূত্রঃ দি টেক জার্নাল

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...