The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

redporn sex videos porn movies black cock girl in blue bikini blowjobs in pov and wanks off.

গবেষণা রিপোর্ট: পুরুষদের তুলনায় মহিলাদের ঘুমের বেশি প্রয়োজন

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ শারীরিক ও একই সঙ্গে মানসিক সুস্থতার জন্য পর্যাপ্ত পরিমাণ ঘুম খুবই জরুরি। তবে ব্যস্ততম জীবনে কাজের চাপে ঘুমের ঘাটতি থেকেই যায়। এক গবেষণা রিপোর্টে বলা হয়, পুরুষদের তুলনায় মহিলাদের ঘুমের বেশি প্রয়োজন।

গবেষণা রিপোর্ট: পুরুষদের তুলনায় মহিলাদের ঘুমের বেশি প্রয়োজন 1

বর্তমানে করোনা পরিস্থিতির কারণে আবারও কিছু কিছু অফিস ৫০ শতাংশ কর্মী নিয়ে কাজ করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে। যে কারণে আবারও বাড়ি থেকে কাজ করছেন অনেকেই। বাড়ি থেকে অফিস করার যেটি প্রধান সমস্যা তা হলো বাড়ি ও অফিস একসঙ্গে সামলানো। এক্ষেত্রে কর্মজীবি মহিলাদের উপরে বেশি চাপ পড়ে। এতোকিছু সামলাতে গিয়ে ব্যাঘাত ঘটে ঘুমের। বিশেষজ্ঞরা বলেছেন, পুরুষদের তুলনায় মহিলাদের ঘুমের বেশি প্রয়োজন।

সোসাইটি ফর উইমেন’স হেলথ রিসার্চের রিপোর্ট অনুযায়ী জানা যায়, ঘুমের সময় মহিলা ও পুরুষের মধ্যে বিভিন্ন শারীরিক পরিবর্তন বেশ লক্ষণীয়।

ন্যাশনাল লাইব্রেরী অফ মেডিসিন বলছে যে, প্রায় ৪০ শতাংশ নারী অনিদ্রায় ভুগে থাকেন। তবে প্রশ্ন হলো পুরুষদের তুলনায় মহিলাদের ঘুমের কেনো বেশি প্রয়োজন?

এই বিষয়ে প্রাথমিক কয়েকটি গবেষণায় দেখা যায় যে, জৈবিক গঠন অনুসারে পুরুষ ও মহিলাদের ঘুমের প্রয়োজনীয়তার সামান্য কিছুটা পরিবর্তন থাকতে পারে। তাছাড়াও গবেষণায় বলা হয়েছে যে, ছেলেদের তুলনায় মেয়েদের ঘুম অনেক বেশিই সজাগ। তুলনামূলক ছেলেদের মধ্যে গভীর ঘুমের প্রবণতা রয়েছে। মেয়েদের ঘুম খুব পাতলা হয়ে থাকে। যে কারণে সময় পেলেও বিভিন্ন কারণে ঘুম ভেঙে যায়। অনেক মহিলারা যেহেতু ঘর ও বাইরে দুটোই সামলান, যে কারণে একটা মানসিক চাপ সব সময় কাজ করে তাদের মধ্যে। তাদের নিশ্চিন্তে ঘুমানোর সুযোগ কম থাকে।

তাছাড়াও হরমোনের ভারসাম্য রক্ষা, মানসিক স্বাস্থ্য ভালো রাখতে, ব্যক্তিগত জীবনযাপন এবং কর্মক্ষমতা বজায়রাখতেও নারীদের ঘুমের বেশি প্রয়োজন।

গবেষণায় দেখা যায় যে, অনিদ্রায় ভোগা মহিলারা উচ্চ রক্তচাপ, টাইপ ২ ডায়াবিটিস, হৃদযন্ত্রের সমস্যা, মানসিক বিষণ্ণতার মতো সমস্যায় পুরুষদের তুলনায় বেশি ভুগে থাকেন মহিলারা। যারা পলিসিস্টিক ওভারি সিনড্রোমে আক্রান্ত তাদের জন্য পর্যাপ্ত পরিমাণ ঘুম খুব প্রয়োজন। দীর্ঘদিন ধরে ঘুমের ঘাটতি সরাসরি শরীরে এলএইচ হরমোনের নিঃসরণকেও প্রভাবিত করে। যে কারণে গর্ভধারণেও অনেক জটিলতা দেখা দিতে পারে নারীদের ক্ষেত্রে।

পর্যাপ্ত পরিমাণ ঘুমানোর জন্য মহিলারা কী কী করবেন?

# রাত ১০টার মধ্যে ঘুমিয়ে পড়ার চেষ্টা করতে হবে। সকাল ৭টায় উঠে পড়তে হবে।

# রাতে শোয়ার পূর্বে কফি, চা, নিকোটিন এড়িয়ে চলতে হবে।

# রাতে হালকা খাবার খেতে হবে। শোয়ার পূর্বে হাঁটাচলা করে নিতে হবে।

# ঘুমানোর আগে গরম পানিতে একবার গোসল করে নিতে পারেন।

তথ্যসূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকার চেষ্টা করি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের কাপড়ের মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

Loading...
sex không che
mms desi
wwwxxx