The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

উইকিপিডিয়াতে বিশ্বের সেরা ১০ প্রভাবশালী ব্যক্তি

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক ॥ অনলাইনে বিশ্বকোষ উইকিপিডিয়াতে সবচেয়ে জনপ্রিয় ব্যক্তি কারা? এই বিষয়ে পাঠকদের মাঝে থেকে জরিপের মাধ্যমে সম্প্রতি একটি তালিকা তৈরি করা হয়েছে যেখানে ১ থেকে ১০ পর্যন্ত তালিকায় উঠে এসেছে বিশ্ব ইতিহাসে দুর্দান্ত প্রভাব রেখে যাওয়া ব্যক্তিদের নাম, এদের কেউ ধর্মীয় ব্যক্তি কেউ লেখক আবার কেউ সম্রাট!


Muhammad-Golden-Door_Fotor_Collage_Fotor

এবার চলুন দেখে নিই কে কে আছেন এই সেরা ১০ জনের তালিকাতেঃ

১। যিশু খ্রিস্ট/ ঈসা নবী
২। নেপোলিয়ন বোনাপার্ট
৩। উইলিয়াম শেকসপিয়র
৪। মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সাঃ)
৫। আব্রাহাম লিঙ্কন
৬। জর্জ ওয়াশিংটন
৭। আডলফ হিটলার
৮। এরিস্টটল
৯। মহামতি আলেকজান্ডার
১০। টমাস জেফারসন

  • মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সাঃ):

Muhammad-Golden-Door

পূর্ণ নাম মুহাম্মাদ ইবনে আব্দুল্লাহ, আব্দুল্লাহ তাঁর পিতার নাম। তিনি ইসলাম ধর্মের কেন্দ্রীয় ব্যক্তিত্ব। তাঁর উপর আল কুরআন অবতীর্ণ হয়েছে। বিশেষজ্ঞদের মতে মুহাম্মাদ ছিলেন পৃথিবীর ইতিহাসে অন্যতম প্রভাবশালী রাজনৈতিক, সামাজিক ও ধর্মীয় নেতা। তার এই বিশেষত্বের অন্যতম কারণ হচ্ছে আধ্যাত্মিক ও জাগতিক উভয় জগতেই চূড়ান্ত সফলতা অর্জন। তিনি ধর্মীয় জীবনে যেমন সফল তেমনই রাজনৈতিক জীবনে।

ফেরেশতা জিব্রাইল মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সাঃ) এর কাছে আল্লাহ্‌র পাঠানো প্রথম ওহী নিয়ে আসেনঃ

পাঠ করুন, আপনার পালনকর্তার নামে যিনি সৃষ্টি করেছেন। সৃষ্টি করেছেন মানুষকে জমাট রক্তপিন্ড থেকে। পাঠ করুন, আপনার পালনকর্তা মহা দয়ালু, যিনি কলমের সাহায্যে শিক্ষা দিয়েছেন, শিক্ষা দিয়েছেন মানুষকে যা সে জানত না।

  • ঈসা নবী বা যিশু খ্রিস্টঃ

easter-sunday20130330210041

যিশু খ্রিস্ট হলেন খ্রিস্টধর্মের মূল ব্যক্তিত্ব। খ্রিস্টান বিশ্বাস অনুসারে, নিজের মৃত্যু ও পুনরুত্থানের মাধ্যমে তিনি জগতের মুক্তি আনয়ন করেছিলেন। যিশুর জন্ম বেথেলহামে ৫ খ্রিস্টপূর্বাব্দে, তার মৃত্যু হয় ৩০ থেকে ৩৫ বছর বয়সে ৩০ খ্রিস্টাব্দে। তাঁকে আবার মুসলিমরা ঈসা নবী হিসেবে মেনে থাকেন। অর্থাৎ একই ব্যক্তি দুই ধর্মানুসারীদের মাঝে আলাদা আলাদা সৃষ্টিকর্তার বার্তা বাহক হিসেবে বিবেচিত।

যিশু খ্রিস্টের উক্তিঃ

সকল প্রকৃতি, সকল সৃষ্টি ও সকল জীব একে অপরের মধ্যে এবং একে অপরকে নিয়ে বেঁচে থাকে।

  • নেপোলিয়ন বোনাপার্টঃ 

141720_napoleon_bonaparte14

ছিলেন ফরাসি বিপ্লবের সময়কার একজন জেনারেল। তিনি ফরাসি প্রজাতন্ত্রের প্রথম কনসল ছিলেন। তাঁর নেতৃত্বে ফরাসি সেনাবাহিনী এক দশকের বেশী সময় ধরে সকল ইউরোপীয় শক্তির সাথে যুদ্ধে অবতীর্ণ হয় এবং তিনি ইউরোপের অধিকাংশ অঞ্চল তাঁর আয়ত্বে নিয়ে আসেন। তাঁর জন্ম ১৫ আগস্ট ১৭৬৯ সালে এবং মৃত্যু ৫ মে ১৮২১ তিনি মাত্র ৫১ বছর বয়সে মারা যান।

নেপোলিয়নের বিখ্যাত উক্তিঃ

আমি ষাটটি যুদ্ধে অংশগ্রহণ করেছি, কিন্তু আমি এমন কিছু শিখিনি যা আমি শুরুতে জানতাম না।

  • উইলিয়াম শেকসপিয়রঃ

Shakespearescorte

উইলিয়াম শেক্সপীয়ার ছিলেন একজন ইংরেজ কবি ও নাট্যকার। তাঁকে ইংরেজি ভাষার সর্বশ্রেষ্ঠ সাহিত্যিক এবং বিশ্বের একজন অগ্রণী নাট্যকার মনে করা হয়। উইলিয়াম শেক্সপীয়ারকে ইংল্যান্ডের “জাতীয় কবি” এবং “বার্ড অফ অ্যাভন” বলা হয়ে থাকে। তিনি জন্মেছেন ২৬ এপ্রিল ১৫৬৪ সালে এবং পরলোক গমন করেন ২৩ এপ্রিল, ১৬১৬ সালে।

উইলিয়াম শেকসপিয়রের সাহিত্যঃ

ভেনাস অ্যান্ড অ্যাডোনিস, টেমপ্লেট, আ মিডসামার নাইট’স ড্রিম, ম্যাকবেথ, কোরিওলেনাস, ওথেলো, অ্যান্টনি অ্যান্ড ক্লিওপেট্রা, রোমিও অ্যান্ড জুলিয়েট।

  • আব্রাহাম লিঙ্কনঃ

abrahamlincolnatsharpsburg

আব্রাহাম লিঙ্কন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ১৬তম রাষ্ট্রপতি। তিনি রিপাবলিকান পার্টির প্রথম রাষ্ট্রপতি, এবং ১৮৬১ হতে ১৮৬৫ খ্রীস্টাব্দ পর্যন্ত ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত ছিলে। ১৮৬৩ সালে তিনি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের দাস প্রথার অবসান ঘটান এবং মুক্তি ঘোষণা (Emancipation Proclamation) এর মাধ্যমে দাসদের মুক্ত করে দেন। তাঁর জন্ম ১২ ফেব্রুয়ারি, ১৮০৯ সালে এবং উইল্‌ক্‌স বুথ নামক আততায়ীর হাতে তিনি ১৮৬৫ খ্রীস্টাব্দের ১৫ এপ্রিল গুলিবিদ্ধ ও নিহত হন।

আব্রাহাম লিঙ্কনের উক্তিঃ

পাঁচটি ডলার কুড়িয়ে পাওয়ার চেয়ে একটি উপার্জিত ডলার অধিক মূল্যবান।

  • জর্জ ওয়াশিংটনঃ

900_george_washington

জর্জ ওয়াশিংটন ছিলেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রথম রাষ্ট্রপতি। তাঁর জন্ম ফেব্রুয়ারি ২২, ১৭৩২ সালে এবং মৃত্যু ৬৭ বছর বয়সে ডিসেম্বর ১৪, ১৭৯৯ সালে।

জর্জ ওয়াশিংটনের বিখ্যাত উক্তিঃ

আমার দেখা সবচেয়ে সুন্দরী মহিলা হলেন আমার মা। মায়ের কাছে আমি চিরঋণী। আমার জীবনের সমস্ত অর্জন তারই কাছ থেকে পাওয়া নৈতিকতা, বুদ্ধিমত্তা আর শিক্ষা।

  • আডলফ হিটলারঃ

_origin_Aizliedz-but-Hitleram-4

আডলফ হিটলার জার্মান রাজনীতিবিদ যিনি ন্যাশনাল সোশ্যালিস্ট জার্মান ওয়ার্কার্স পার্টির নেতৃত্ব দিয়েছিলেন। হিটলার ১৯৩৩ থেকে ১৯৪৫ সাল পর্যন্ত জার্মানির চ্যান্সেলর এবং ১৯৩৪ থেকে ১৯৪৫ সাল পর্যন্ত সে দেশের ফিউরার ছিলেন। তাঁর নেতৃত্বে ১৯৩৯ সালে জার্মানরা পোল্যান্ড অধিকার করে এবং ফলশ্রুতিতে ব্রিটেন ও ফ্রান্স জার্মানির বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করে। এভাবেই দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ শুরু হয়। হিটলারের জন্ম ২০শে এপ্রিল, ১৮৮৯ সালে এবং মৃত্যু ৫৬ বছর বয়সে এপ্রিল ৩০, ১৯৪৫ সালে।

আডলফ হিটলারের উক্তিঃ

আমি মানুষকে সবসময় ভালবাসতে না বলে যুদ্ধ করতে বলি। কারণ যুদ্ধে যেকেউ বাঁচবে না হয় মরবে। কিন্তু ভালবাসাতে না পারবে বাঁচতে, না পারবে মরতে।

  • এরিস্টটলঃ

ROM11

অ্যারিস্টটল খ্রিষ্টপূর্ব ৩৮৪ সালে থারেস উপকুলবর্তী স্টাগিরাস নামক এক গ্রিক উপনিবেশে জন্ম গ্রহণ করেন। তিনি প্লেটোর একাডেমিতে সরাসরি প্লেটোর অধীনে প্রায় বিশ বছর শিক্ষা গ্রহণ করেন। অ্যারিস্টটল খ্রিষ্টপূর্ব ৩২২ সালে পেটের পিড়ায় ভুগে হঠাৎ মৃত্যু বরণ করেন।

অ্যারিস্টটলের বিখ্যাত উক্তিঃ

দুর্ভাগ্যবান তারাই যাদের প্রকৃত বন্ধু নেই।

  • মহামতি আলেকজান্ডারঃ

alexander-the-great1x

মহামতি আলেকজান্ডার পৃথিবীর ইতিহাসে অন্যতম সফল সামরিক প্রধান। আলেকজান্ডার তার সামরিক কৌশল ও পদ্ধতির জন্য বিশ্ব বিখ্যাত। তিনি পারস্যে অভিশপ্ত আলেকজান্ডার নামেও পরিচিত, কারণ তিনি পারস্য সাম্রাজ্য জয় করেন এবং এর রাজধানী পারসেপলিস ধ্বংস করেন। তাঁর জন্ম জুলাই খ্রিষ্টপূর্ব ৩৫৬,এবং মৃত্যু জুন ১১, খ্রিষ্টপূর্ব ৩২৩।

মহামতি আলেকজান্ডারের উক্তিঃ

যে সহজ সরল জীবনযাপন করে, সুখ তার জন্য অত্যন্ত সুলভ্য।

  • টমাস জেফারসনঃ

jefferson-portrait

টমাস জেফারসন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের তৃতীয় রাষ্ট্রপতি। টমাস জেফারসন ছিলেন একজন রাজনিতিক দার্শনিক। তিনি সমর্থন করতেন ধর্ম নিরপেক্ষ রাষ্ট্রের। তিনি লিখেছেন ভার্জিনিয়ার মুক্তধর্ম আইন। তাঁর জন্ম এপ্রিল ১৩, ১৭৪৩ সালে এবং মৃত্যু জুলাই ৪, ১৮২৬ সাল।

টমাস জেফারসনের উক্তিঃ

স্বাধীনতা হচ্ছে একটি বৃক্ষ যাকে সব সময় স্বাধীন জাতির দেশপ্রেম ও আত্মত্যাগের রক্ত দিয়ে উজ্জীবিত রাখতে হয়, এটাই প্রাকৃতিক ও বাস্তবিক নিয়ম, এর ছেদ পড়লেই স্বাধীনতার বৃক্ষ মারা যাবে।

সূত্রঃ উইকিপিডিয়া
ধন্যবাদান্তেঃ Dailymai

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...