The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে মনোভাব পরিবর্তন হচ্ছে: সহিংস কোন আন্দোলনে যাবে না বিএনপি

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক ॥ বিএনপি ৫ জানুয়ারির নির্বাচন হয়ে যাবার পর পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে এখন জনগণকে সম্পৃক্ত করে অহিংস পন্থায় আন্দোলন চালিয়ে যাবার কথা বিবেচনা করছে।


Block -Hartal

বিতর্কিত নির্বাচনের মধ্য দিয়ে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন সরকার গঠিত হবার পর পরবর্তী নির্দেশনা না দেয়া পর্যন্ত অবরোধ হরতাল কর্মসূচি বাতিল করেছে বিএনপি তথা ১৮দল।

বিতর্কিত এই নির্বাচনের মধ্য দিয়ে সরকার গঠনের পর বিরোধী জোটের প্রধান বিএনপি তাদের পরবর্তী কর্মসূচি নিয়ে শরিক দলগুলোর সাথে আলাপ আলোচনা করছে- দলীয় সূত্রগুলো এমন আভাস দিয়েছে।

বিএনপি’র তৃণমূল পর্যায়েও আন্দোলনে বেশ ভাটা পড়েছে। বিশেষ করে আওয়ামীলীগ নতুন সরকার গঠন করায় জেলা-উপজেলা পর্যায়ে নেতা-কর্মীদের মধ্যে হতাশা নেমে এসেছে। তারা মনে করছেন, এখন আওয়ামীলীগ নতুন করে ক্ষমতায় এসেছে। তাদের রয়েছে প্রশাসন। যে কারণে নেতা-কর্মীরা ভীত সন্ত্রস্ত্র হয়ে পড়েছেন। এমন এক পরিস্থিতিতে আন্দোলন কতখানি সফল হবে তা নিয়ে বেশ সংশয় দেখা দিয়েছে। অথচ দলটির নেতারা বলছেন, তাদের কর্মসূচিতে মূলত প্রাধান্য পাবে তৃণমূল পর্যায়ে নেতাকর্মীদের নিয়ে জন-সম্পৃক্তা বাড়ানো।

পরবর্তীতে ১৮ দলের কি কি কর্মসূচি আসছে তাও পরিষ্কার করে কিছু বোঝা যাচ্ছে না। বিএনপির এক সিনিয়র নেতাকে প্রশ্ন করা হয়, তাদের এই আন্দোলনে হরতাল অবরোধের মত কঠোর কোনো কর্মসূচি থাকবে কি না এমন প্রশ্নে তিনি পরিষ্কার করে কিছু না বললেও তিনি জানিয়েছেন সহিংস কোন আন্দোলনে তারা যাবেন না।

শুধুমাত্র বিদেশীদের ওপর ভরসা করে বিএনপিকে আগাতে হচ্ছে এমন ভাবছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা। তারা মনে করছেন, আপাতত বিএনপিকে রয়ে-সয়ে আন্দোলন করতে হবে। শুধু জ্বালাও-পোড়াও করে জনগণের বিরুদ্ধে গেলে তা হবে বিএনপির জন্য বুমেরাং। গত তিন বছরে ঠিক তাই হয়েছে। গত এক সপ্তাহের অবরোধ বা হরতালে এমন ঘটনায় দেখা গেছে। অবরোধে এখন রাজধানী ঢাকা স্বাভাবিক থাকে। এমনটি দূরপাল্লার বাসও চলছে কিছু কিছু। কারণ মানুষের পিঠ দেয়ালে ঠেকে গেছে। এখন ভাংচুরের ভয়ে কেও ঘরে বসে থাকছে না। এখন হরতালেও প্রাইভেট কার নামছে রাস্তায়। এখনই সিদ্ধান্ত না নিলে ভবিষ্যতে হরতাল-অবরোধের মতো হিংসাত্মক কর্মসূচি বলে আর কিছুই থাকবে না। বিষয়গুলো বিএনপির মধ্যেও রয়েছে বলে জানা গেছে। এখন পরবর্তী আন্দোলনের কর্মসূচি দেখে বোঝা যাবে তাদের পরিবর্তিত রাজনৈতিক কর্মসূচি কি হচ্ছে।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...