The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

উপজেলা নির্বাচনে বিএনপির তৃণমূলে প্রস্তুতি চলছে: এখন শুধুই কেন্দ্রীয় নির্দেশের অপেক্ষা!

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক ॥ উপজেলা নির্বাচনে অংশ নেওয়া না নেওয়ার ব্যাপারে কেন্দ্রীয়ভাবে নির্দেশনা না আসলেও তৃণমূল পর্যায়ে ব্যাপক প্রস্তুতি লক্ষ্য করা যাচ্ছে।


Election UPO-2014

উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পরই বিএনপির মাঠপর্যায়ের নেতারা নির্বাচনে অংশ নেওয়ার ব্যাপারে প্রস্তুতি শুরু করেছেন। এখন শুধু দলের কেন্দ্রীয় নির্দেশের অপেক্ষা করছেন মনোনয়নপ্রত্যাশীরা।

জানা গেছে, উপজেলা চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান পদে বিএনপি নেতৃত্বাধীন ১৮ দলীয় জোট একক প্রার্থী দেবে। নীতিনির্ধারণী ফোরাম, স্থায়ী কমিটির সদস্য, ভাইস চেয়ারম্যান, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা, যুগ্ম মহাসচিব, সাংগঠনিক সম্পাদক ও জোটের শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে আলোচনা করেই প্রতিটি উপজেলায় একক প্রার্থী দেওয়ার ব্যাপারে মাঠপর্যায়ের নেতাদের নির্দেশনা দেওয়া হবে এমনটা বলা হচ্ছে।

অপরদিকে নির্বাচন কমিশন আগামীকাল বৃহস্পতিবার দ্বিতীয় দফা উপজেলা নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করবেন। এমন এক পরিস্থিতিতে দেশব্যাপী নির্বাচনের এক হাওয়া বইতে শুরু করেছে। বিশেষ করে সংসদ নির্বাচনে সাধারণ জনগণের সম্পৃক্তরা না থাকায় উপজেলা নির্বাচনে সেই মাত্রা যোগ হবে বলে অনেকেই মনে করছেন।

২০০৯ সালে ৬ জানুয়ারি আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন মহাজোট সরকার গঠনের পর ২২ জানুয়ারি উপজেলা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। তখন ওই নির্বাচনে ১৮ দলীয় জোট সমর্থিত নেতারা নির্বাচনে অংশ নেন। কিন্তু বেশির ভাগ উপজেলায় আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোট সমর্থিতরা বিজয়ী হন।

উল্লেখ্য, গত রবিবার নির্বাচন কমিশন ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী ১০২টি উপজেলায় আগামী ১৯ ফেব্রুয়ারি নির্বাচন হবে। এই নির্বাচনের মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ তারিখ ২৫ জানুয়ারি। যাচাই-বাছাই ২৭ জানুয়ারি ও প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ৩ ফেব্রুয়ারি। এই অল্প সময়ের মধ্যেই বিএনপি নেতারা প্রস্তুতি নিচ্ছেন। তৃণমূল পর্যায়ের কেও কেও এমন কথাও বলছেন যে, কেন্দ্র থেকে নির্দেশনা না পেলেও তাঁরা প্রার্থী হবেন।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...