The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

redporn sex videos porn movies black cock girl in blue bikini blowjobs in pov and wanks off.

সাগর তলে বিলাসবহুল মধুচন্দ্রিমা

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক ॥ দাঁতে দাঁত কামড়ে যারা রোমাঞ্চ উপভোগ করতে চান তাদের আমন্ত্রণ আমাদের এই অতল ঢেউ এর রাজ্যে, অকপটে এই স্লোগান দিয়ে অভিনব এক সেবা নিয়ে এসেছে অলিভারস ট্রাভেল নামের এই বিলাসবহুল প্রাইভেট ভ্রমণ কোম্পানী। চলুন জেনে নেয়া যাক বিস্তারিত।


লাভারস ডিপ ডুবোজাহাজে করে সাগরের অতলে যে সকল যুগল শারীরিক উদ্দীপনা উপভোগ করতে চান তাদের উদ্দেশ্যে মাইল লো ক্লাব শিরোনামের এই সার্ভিস নিয়ে এসেছে প্রাইভেট এই কোম্পানীটি। যদিও অন্যান্য সুযোগ সুবিধা বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য তারা গোপন রেখেছে! অভিনব পদ্ধতিতে অবকাশ যাপনের দশ বছর পূর্তি উপলক্ষ্যে বৃটিশ এই ভ্রমণ কোম্পানীর এই ডুবোজাহাজটি বর্তমানে ক্যারিবিয়ান সাগরে নোঙর করা আছে।

অলিভার ট্রাভেলসের যুগ্ম প্রতিষ্ঠাতা অলিভার বেইল বলেন, দশ বছর পূর্বে আমাদের ব্যবসা শুরু করেছিলাম মূলত ফ্রেঞ্চ প্রাসাদগুলোকে কেন্দ্র করে কিন্তু গত নভেম্বরে অলিভার ট্রাভেলস হিসাবে আত্মপ্রকাশের পর থেকেই আমরা খুঁজতে থাকি অদ্ভুত ও অভিনব কিছু যা আপনাকে চমকে দিবে, দিবে জীবনকে নতুন মাত্রা। আমরা একটি মিটিং ডেকে উপস্থিত সবাইকে জিজ্ঞেস করি ঘুরতে যাওয়ার জন্য সবচেয়ে মধুর জায়গা কোনটি? প্রথমেই যে প্রস্থাবটি আসে তা হলো চাঁদ এবং স্বাভাবিকভাবেই সেটা বাতিল হয়ে যায় এবং পরবর্তী প্রস্তাব হিসাবে ডুবোজাহাজকে আমলে নেয়া হয় এবং এ ধরণের ডুবোজাহাজ প্রস্তুতকারক কোম্পানিও পেয়ে যাই অচিরেই। তাই আমরা পরবর্তীতে বাস্তব প্রকল্প করা যাবে এমন জায়গা বেছে নিলাম—সাগর তলের সাবমেরিন। আমরা একটি সাবমেরিন কোম্পানির সাথে কথা বললাম যারা আমাদেরকে ফরমায়েশ অনুযায়ী স্বপ্ন পূরণে সাহায্য করবে।

পকেটের গভীরতা হওয়া চাই সমুদ্রসম

এই বিশেষ সেবাটি আপনি তখনই নিতে পারবেন যদি আপনার পকেট সমুদ্র সমান গভীরতা ধারণ করতে পারে । পানির বুকে এই অভিনব ভ্রমণের খরচ শুনলে এমনিতেই আপনার চোখে পানি আসার উপক্রম হবে, তা হলো এক রাতের জন্য মাত্র ১,৭৫,০০০ ইউরোর (২,৯২,০০০.০০ ডলার, প্রায় সোয়া দুই কোটি টাকা) এক রাতের বিশেষ এই প্রমোদ ভ্রমণের খরচ। যদিও ভালোবাসা দিবসকে সামনে রেখে এই দুঃসাহসিক পদক্ষেপ নেয়া হয়েছিলো তথাপি এক রাতের জন্য কোটি টাকার উপর খরচ করবে এমন কাউকে পাওয়ার যায়নি এখন পর্যন্ত। ভ্যালেন্টাইন‘স ডের কাছাকাছি সময়ে এই রোমাঞ্চকর প্রকল্পটি উন্মুক্ত হলেও এখনো পর্যন্ত কেউই তার বিশেষ মানুষটিকে নিয়ে এক রাত থাকার জন্য ছয় অঙ্কের সংখ্যাটি পূরণ করেন নি।

বেল যদিও প্রথম বুকিং এর ব্যাপারে খুবই আশান্বিত, তার ধারণা এটি শীঘ্রই কাজে পরিণত হতে যাচ্ছে।

এটি সত্যি অনেকেই ঠাট্টা করে আমাদের কাছে অনেক কিছু জানতে চেয়েছেন। তবে আমরা কমপক্ষে ৫ জন উৎসাহীকে পেয়েছি যারা আসলেই আসার জন্য উন্মুখ। তাই একটি হলেও বুকিং আমরা তাড়াতাড়িই পেতে যাচ্ছি এই ব্যাপারে আমি আশাবাদী। আর যদি তা সত্যি হয়, তাহলে পুরো অফিস জুড়ে সবাই একে অন্যকে অভিবাদন জানানোর ধুম পড়ে যাবে বলে আমার বিশ্বাস।

তাহলে আসলে এক রাতের ২,৯২,০০০ ডলারে আপনি কি কি পাচ্ছেন সেই সাবমেরিনটিতে? উত্তরটি খুবই সহজ, আপনি যা- চাবেন, তাই।

এই সেবাটি নেয়ার সাথে সাথে আপনি পাবেন একটি অসাধারণ সুযোগ। সাবমেরিনের কোথায় কোন পোশাক পরলে আপনাকে লাগবে আকর্ষণীয়, তা আপনি বাছাই করতে পারবেন। শুধু এই জন্যই কিছু বিখ্যাত পোশাকের ব্র্যান্ড আপনার জন্য মজুদ থাকবে। কি বেডরুম থেকে বাথরুম অথবা বার থেকে বলরুম আপনি সবখানেই ফ্ল্যাশ লাইটের নিচেই থাকবেন।

প্রমোদ-যাত্রার কাব্যকথা

আপনাকে আপনার ভ্রমণের জন্য খরচ তো দিতেই হবে, কিন্তু সাবমেরিন পর্যন্ত যাওয়া এবং ফিরে আসার জন্য একটি স্পিডবোট থাকছে। পানির নিচে এই রোম্যান্টিক বিনোদনের জায়গাটি কেমন লাগবে তা নিয়ে একজন শিল্পীর বিমূর্ত ধারণাকে একটি রেপ্লিকার মাধ্যমে ভৌত রূপ দেয়া হয়েছে। এর সাহায্যে আপনি চলে যেতে পারেন ঢেউয়ের নিচে, এমনকি ধরা-ছোঁয়ার বাইরে। কোম্পানি থেকে এটি জোর দিয়ে বলা হয়েছে যে ভ্রমণকারীদের কথা বিবেচনায় এনে ক্যাপ্টেন, বাবুর্চি এবং মূল পরিচারকের জন্য আলাদা সাউন্ড প্রুফ রুম সাবমেরিনের অন্য অংশে প্রদান করা হবে। ইতিমধ্যে একই সাথে সমুদ্রের নিচে ও পরিচয় গোপন রেখে রোমান্টিক পরিবেশের এই লুকোচুরি খেলা কীভাবে উপভোগ করবেন তা উপহাস করে নানান কার্টুন এঁকেছেন কয়েকজন শিল্পী। ক্রুদের জন্য জাহাজের অন্যপার্শ্বে সম্পূর্ণ পৃথক শব্দনিরোধক থাকার ব্যাবস্থা নিশ্চিত করেছেন ভ্রমন উদ্যোক্তা এই কোম্পানী।

ব্যারি ওয়াইটও থাকছেন…

এখন যদিও সাবমেরিনটি ক্যারিবিয়ান অঞ্চলে আছে, তবে আপনার ইচ্ছেমত জায়গায় আপনি এটিকে নোঙর করাতে পারেন। বাবুর্চির নিজের ঘরে তৈরি করা মেনু আপনি পেতে পারেন যা আপনাকে উদ্দীপনা যোগাবে। চিংড়ি থেকে শুরু করে চকোলেট ফন্ডেন্ট পর্যন্ত সবই থাকছে, চাইলে ডালিমের রসে তা ভিজিয়েও দেয়া যাবে।

কি ভাবছেন এই পরিবেশ আপনাকে মুডে আনার জন্য যথেষ্ট নয়?

কোম্পানির ওয়েবসাইটে তারা কথা দিয়েছেন যে তারা পুরো সাউন্ড সিস্টেম জুড়েই ব্যারি ওয়াইটের সেই রোম্যান্টিক গান বাজাতে থাকবে- You’re the first, the last, the everything ( তুমিই প্রথম , তুমিই শেষ, তুমিই সবকিছু)।

বেরীর গান বাজানোটা নিছক কৌতুকের অংশ, বলেন বেল আসলে আমরা সব আনন্দ একযোগে পাইয়ে দেওয়ার ব্যাবস্থা করতে চেয়েছি আমাদের অতিথির জন্য এবং এ ব্যাপারে আমরা সত্যি সত্যি আন্তরিক। কিন্তু নিঃসন্দেহে আমরা এটা নিয়ে সিরিয়াস। আমরা জানি এই প্রকল্পটি এমন যেটা আমাদের সাধারণ কাস্টমারদের বেচা-কেনার লিস্টে নেই। কিন্তু আমাদের কাছে মনে হয় ঐ পরিমাণ সম্পত্তির মালিকরা নির্দিষ্ট রুচির অভিলাষী- বলেন বেল। তিনি আরো জানান ১২ সপ্তাহের মধ্যে এটি তৈরি হয়ে যাবে। তারপর কাস্টোমাররা যা চাবেন, তাই পাবেন এখানে। যাদের ক্লাস্ট্রোফোবিয়া ( বদ্ধ জায়গায় থাকবার ফলে মনের মাঝে তৈরি হওয়া তীব্র ভয়ের অনুভূতি ) আছে, তারা যতই ধনী হন না কেন, তাদের না যাওয়ার জন্য বেল সতর্ক করে দেন।

শিল্পীর ধারণা অনুযায়ী সাবমেরিনে জেমস বন্ডের ভিলেনদের বাসস্থানের একটা স্বাদ আছে। ঐ যে সেই কার্ল স্টরম্বারগ, দ্য স্পাই হু লাভড মি বই থেকে, যার বাড়ি ছিল আটলান্টিস এ, এখানে সেরকম সম্পৃক্ত কিছু একটা আছে এই ডুবোজাহাজে। বেল আরো যুক্ত করেন যে, এটা অত্যন্ত সুন্দরভাবে সাজানো, তবে আপনি আপনার মন মত তাকে সাজিয়ে নিতে পারবেন।

বেল বলেন, এটি আমার কাছে সত্যিই অসাধারণ। কিন্তু যে কেউ তার রুচি মত এটি পেতে পারে।

যদিও বেল এখনো পর্যন্ত সাবমেরিনটি দেখতে যাননি, তবে আগ্রহের পারদ যেহেতু চড়তে শুরু করেছে, তাই তিনি শীঘ্রই একবার ক্যারিবিয়ায় যাওয়ার কথা ভাবছেন। তিনি দেখতে চান, তার কাস্টোমারদের জন্য কি আছে সেখানে এবং কিভাবে তারা সাগর তলে ভালোবাসা খুঁজে পেতে পারেন, কতো প্রকারে তারা উপভোগ করতে পারেন সেখানে।

তথ্যসূত্র : CNN NEWS

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...
sex không che
mms desi
wwwxxx