The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

হিন্দু না হলে বাংলাদেশীদের ভারত ছাড়ার হুমকি!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ হিন্দু না হলে বাংলাদেশীদের ভারত ছাড়ার হুমকি দিয়েছেন ভারতের উগ্রহিন্দুত্ববাদী সংগঠন বজরং দল। উগ্রপন্থি ওই দলটি বলেছে, বাংলাদেশীদের অবশ্যই দেশ ত্যাগ করতে হবে নতুবা হিন্দু ধর্মে ধর্মান্তরিত হতে হবে।

India Bajrand Dal
ফাইল ফটো

ভারতের উগ্রহিন্দুত্ববাদী সংগঠন বজরং দল বলেছে যে, বাংলাদেশীদের অবশ্যই দেশ ত্যাগ করতে হবে নতুবা হিন্দু ধর্মে ধর্মান্তরিত হতে হবে। এই সংগঠনটি বিশ্ব হিন্দু পরিষদের সশস্ত্র যুব সংগঠন। গতকাল মঙ্গলবার সংগঠনটির মেরুত শাখার আহ্‌বায়ক বলরাজ দুঙ্গা এই হুমকি দিয়েছেন।

সংবাদ মাধ্যম বলেছে, বাংলাদেশীদের দেশ ছাড়ার আল্টিমেটাম দিয়ে বলরাজ বলেন, ‘আমাদের প্রথম কথা হলো বাংলাদেশীদের অবশ্যই ভারত ছাড়তে হবে। তারা এই দেশের জনশক্তির ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। আর যদি দেশে থাকতেই হয় তবে তাদেরকে হিন্দু হয়েই থাকতে হবে। আমাদের জীবন যাত্রার সঙ্গে তাদের খাপ খাইয়ে নিতে হবে।’

ভারতের উত্তর প্রদেশে সম্প্রতি আয়োজিত ধর্মান্তর অনুষ্ঠান সম্পর্কে বলরাজ বলেছেন, ‘আমরা শুধু এ সরকারের সময়ই নয়, কংগ্রেস সরকারের আমলেও এই অনুষ্ঠানের প্রচারণা চালিয়েছি। এটা একটা ধারাবাহিক প্রক্রিয়া, এটা চলবেই।’

বলরাজ আরও বলেছেন, ‘বাংলাদেশীরা স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় এখানে শরণার্থী হিসেবে এসেছিল কিন্তু ৪৩ বছর ধরে তারা এখানে বসবাস করছে। তাদের এখন চলে যাবার সময় হয়েছে।’

তবে বিশ্ব হিন্দু পরিষদের সাধারণ সম্পাদক সুদর্শন চক্র বলেছেন, ‘আমি বজ্রং নেতাদের সঙ্গে পুরো একমত নই। বাংলাদেশীদের কোনো ছাড় দেওয়া আমাদের সংগঠনের এজেন্ডা নয়। সরকারের দেওয়া তথ্যমতে দেশে প্রায় ৩ কোটি বাংলাদেশী রয়েছে। তাদের সবাইকে অবশ্যই এদেশ ছাড়তে হবে। তাদের হিন্দুতে ধর্মান্তরিত করারতো কোনো প্রশ্নই উঠে না। তাদের কারণেই বেকারত্ব এবং সন্ত্রাস বেড়ে যাচ্ছে।’

উল্লেখ্য, ভারতে কতজন বাংলাদেশী রয়েছে, তা নিয়ে মতানৈক্য রয়েছে। ২০০১ সালে সেনসাসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছিল, ভারতে ৩০ লাখ বাংলাদেশী রয়েছে। আবার ২০১২ সালে রাজ্যের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মোল্লাপেল্লাই রামচন্দ্র বলেছিলেন, গত এক দশকে ভারতে ১৪ লাখ বাংলাদেশী প্রবেশ করেছে। অপরদিকে ২০০৭ সালের ভারত সরকারের তথ্য অনুযায়ী ২ কোটি বাংলাদেশী বসবাস করছে বলে উল্লেখ করা হয়। বিভিন্ন সময় বিভিন্ন তথ্য দেওয়া হয়েছে। আসলে কোনটি সঠিক তা ভারতও জানে না।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...