The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

৪০ বছর ধরে লিখা প্রেমপত্রের কাহিনী

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ অনেক কাহিনী আপনারা পড়েছেন, কিন্তু আজ আপনাদের জন্য রয়েছে ৪০ বছর ধরে লিখা এক প্রেমপত্রের কাহিনী।

40 years love letters

ভালবাসা দিবস পার হয়ে গেলো মাত্র কয়েকদিন। কিন্তু এর রেশ এখনও কাটেনি। কারণ ভালবাসার নানা কাহিনী এখন উঠে আসছে। এমনই এক প্রেমপত্রের কাহিনী রয়েছে আপনাদের জন্য। সে কাহিনী ৪০ বছর ধরে লিখা এক প্রেমপত্রের কাহিনী। আমেরিকার নিউ জার্সিতে এক ব্যক্তি এমন এক কাহিনী করেছেন সেটি হয়তো স্বাভাবিকভাবে কাওকেই করতে দেখা যায় না। নিউ জার্সির বিল ব্রেসনেন নামে এক ব্যক্তি দীর্ঘ ৪০ বছর যাবত তার স্ত্রীর জন্য লিখে যাচ্ছেন প্রেমপত্র। জমতে জমতে এখন যেনো এক প্রেমপত্রের পাহাড়ে পরিণত হয়েছে।

সংবাদ মাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, ৭৪ বছর বয়সী প্রেমিক ব্রেসনেন তার স্ত্রী ক্রিসটেনের জন্য ৪০ বছরে লিখেছেন প্রায় ১০ হাজারেরও বেশি প্রেমপত্র। ওইসব পত্রে তিনি তাদের প্রথম দেখা হওয়ার পর হতে কাটানো সময় এমনকি অনুভূতিগুলোকে লিপিবদ্ধ করেছেন তার প্রেমপত্রে।

৪০ বছর ধরে ব্রেসনেন তার লেখা ২৫ বক্স পত্রের বিষয় সম্পর্কে বলেছেন, ‘উদাহরণ স্বরূপ আপনি ১৯৮২ সালের একটি দিনকে ধরতে পারেন, হয়তো সেদিন আমরা কোনো রেস্টুরেন্টে খেতে গিয়েছি অথবা কোনো মুভি দেখেছি, আর সেক্ষেত্রে আমার পত্রে লিপিবদ্ধ থাকে আমাদের সেখানে যাওয়া এবং সেখানকার প্রতিক্রিয়া বা অনুভূতিগুলোর কথা।’

সংবাদ মাধ্যমের খবরে আরও বলা হয়, মাত্র কয়েক বছরের ব্যবধানে তাদের দুজনেরই ক্যান্সার ধরা পড়লেও ব্রেসনেন তার প্রেমপত্র লেখা এখনও বন্ধ করেননি। কিন্তু ১৪ ফেব্রয়ারি ভালোবাসা দিবসে তাদের কোনো পরিকল্পনা থাকে না। এমন কথায় অনেকে আশ্চর্য হতে পারেন এবং অবাক হওয়ারও কথা। ব্রেসনেন এর কারণ হিসেবে বলেছেন, তাদের কাছে বছরের প্রতিটি দিনই ভালোবাসা দিবস। হয়তো ভালবাসা দিবসে রাতে ভালোভাবে রাতের আহার গ্রহণ করা বা বিশেষ কোনো ওয়াইন পান করা অথবা চকলেট খাওয়া যথেষ্ট। কেনোনা গহনা কেনা ও অতিরিক্ত খরচ করার আকাঙ্ক্ষাকে অর্থহীন বলে মনে করেন এই প্রেমিক ব্রেসনেন।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...