ভারতের সুষমা ভার্মা ১৫ বছর বয়সেই পিএইচডি প্রার্থী হলেন!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ ভারতের লক্ষ্ণৌর মেয়ে সুষমা ভার্মা ১৫ বছর বয়সেই পিএইচডি প্রার্থী হলেন! সাফল্য আর রেকর্ড গড়া অভ্যাসে পরিণত করেছেন এই কিশোরী সুষমা।

15-year-old PhD candidate

ভারতের লক্ষ্ণৌর মেয়ে সুষমা ভার্মা ১৫ বছর বয়সেই পিএইচডি প্রার্থী হলেন! সাফল্য আর রেকর্ড গড়া অভ্যাসে পরিণত করেছেন এই কিশোরী সুষমা। মাত্র ১৫ বছর বয়সে পিএইচডি প্রার্থী হয়ে হইচই পড়ে গেছে ভারত জুড়ে। মাত্র ৫ বছর বয়সেই বিশেষ বিবেচনায় নবম শ্রেণীতে পড়ার সুযোগ লাভ করেন সুষমা। এরপর অগ্রযাত্রা কেও থামাতে পারেনি এই বিস্ময় বালিকার।

15-year-old PhD candidate-2

সংবাদ মাধ্যমের খবরে জানা যায়, মাত্র ১৩ বছর বয়সে বিএসসি ও ১৫ বছর বয়সে বিভাগে প্রথম স্থান লাভ করে এমএসসি (মাইক্রোবায়োলজি) ডিগ্রি সম্পন্ন করেন সুষমা ভার্মা। কিন্তু এখানেই থেমে থাকার পাত্রী নন সুষমা ভার্মা। এবার সবচেয়ে কম বয়সে পিএইচডি ডিগ্রিও লাভ করতে যাচ্ছেন সুষমা ভার্মা। সর্বশেষ বাবাসাহেব ভিমরাও আম্বেদকর বিশ্ববিদ্যালয়ে পিএইচডি গবেষক হিসেবে নাম নিবন্ধন করেছেন সুষমা ভার্মা।

ইন্ডিয়া টাইমস এর খবরে বলা হয়েছে, সুষমা ভার্মার বাবা একজন সামান্য পরিচ্ছন্নতাকর্মী ও মা গৃহিণী ছায়া দেবীর ঘরে সুষমার জন্ম হয় ২০০০ সালে। তিন ভাইবোনের মধ্যে সুষমা ভার্মা সবার বড়। সুষমার ছোট ভাইও তাঁরই মতো মেধাবী। সুষমার ছোট ভাই শৈলেন্দ্রও মাত্র ১৪ বছর বয়সে বিএসসি ডিগ্রি লাভ করেছেন।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...