তিন মিনিট ব্যায়াম করুন, ডায়াবেটিস থেকে মুক্ত থাকুন !

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক ॥ ওজনও কমে না, শরীরে অতিরিক্ত চর্বি , ডায়াবেটিসের ঝুঁকি? আপনার শারিরীক সুস্থতার জন্য প্রতিদিন তিন মিনিট ব্যায়ামই যথেষ্ট। যারা অলস বা নিয়মিত ব্যায়াম করার সময় পায় না তারা এই খবর পড়ে আক্ষরিক অর্থে আনন্দে লাফ দিয়ে উঠবেন। প্রতিদিন মাত্র তিন মিনিট ব্যায়াম করেই আপনি বাঁচতে পারেন ডায়াবেটিস ঝুঁকি থেকে, শরীরের অতিরিক্ত চর্বি কমাতে । সম্প্রতি ইংল্যান্ডের একটি সংবাদ মাধ্যমের প্রতিবেদনে এ তথ্য প্রকাশিত হয়েছে ।


cyclew

অতিরিক্ত চর্বি কমানোর ক্ষেত্রেঃ

গবেষকরা বলছেন, শরীরের অতিরিক্ত চর্বি কমাতে আমাদের ঘণ্টার পর ঘণ্টা জিমগুলোতে সময় কাটানোর প্রয়োজন নেই। বরং সপ্তাহে নিয়মিত মাত্র তিন মিনিটের ব্যায়ামই আপনার ওজন কমাতে সাহায্য করতে পারে।

বার্মিংহাম এবং নটিংহ্যাম বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল বিজ্ঞানীর বক্তব্য অনুসারে, তিন মিনিটের ব্যায়াম অনাকাংখিত চর্বি ঝরাতে  কার্যকর। তারা বলেছেন, ভারী ধরনের ব্যায়াম চর্বি ঝরাতে সক্ষম এমন হরমোন নির্গমনে সাহায্য করে। এই হরমোনগুলো গ্লুকোজকে রক্ত থেকে পেশীতে স্থানান্তরিত করে। যার ফলে অতিরিক্ত চর্বিগুলো জমে থাকে না। আর অতিরিক্ত চর্বি থাকলেও তা ঝরে যায়।

ডায়াবেটিস ঝুঁকি কমানোর ক্ষেত্রে :

বাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণা রিপোর্ট থেকে জানা যায় – ডায়াবেটিসের ঝুঁকি কমাতে সপ্তাহে ৩ বারে ২০ মিনিট  অর্থাৎ প্রতিদিন গড়ে ৩ মিনিটের কম সময় সাইক্লিং করতে হয়। ২০০জনের ওপর পরিচালিত ৬ সপ্তাহের গবেষণায় দেখা গেছে, সপ্তাহে ৩ বারে ২০ মিনিট সাইক্লিং করার ফলে তাদের প্রতিদিন ইনসুলিন হরমোন এর কার্যক্ষমতা ও পুনরুত্পাদন শতকরা আট ভাগ  শতাংশ বেড়ে যায়। নিয়মিত ব্যায়াম রক্তে শর্করার মাত্রা কমায় এবং মানুষের কর্মক্ষমতা বাড়ায়।

গবেষণাকারী নিলস ভল্লার্ড বলেন,”আমাদের শরীরে গ্লাইকো্জেন নামক শর্করা বিদ্যমান ’।এই গ্লাইকো্জেন ব্যায়ামের সময় ব্যবহৃত হয়। ব্যায়ামের পর এই শর্করার মাত্রা ফিরিয়ে আনতে আমাদের রক্তে শর্করা থাকা জরুরি যা মাংশপেশি সবল রাখতে সাহায্য করে। যারা ব্যায়াম না করে ইনসুলিন হরমোন তৈরি হতে অনেক বেশি সময় লাগে। যার ফলে রক্তে শর্করার মাত্রা বেড়ে যাওয়া ও উচ্চ রক্তচাপ হওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

ব্যায়ামের কিছু নিয়মাবলীঃ 

বয়স ও শরীরের ওপর ভিত্তি করে সব লোকের জন্য ব্যায়ামের আগে-পরে কিছু নিয়ম মেনে চলতে হয়। ব্যায়াম করার আগে ও পরে কিছু নিয়ম মেনে চলতে হয়।
-আলো-বাতাস আসতে পারে এ রকম ঘর বেছে নেওয়া উচিত ব্যায়াম করার জন্য।
– ব্যায়াম শুরু করার আগে ভালোমতো ওয়ার্ম আপ করে শরীর গরম করে নিন।
– শুরুতে বেশ কিছুক্ষণ আগে হালকা কিছু খেয়ে নেবেন, যাতে শর্করা থাকে, সে সঙ্গে আধা গ্লাস পানি।
– দেহের ছন্দ আনার জন্য ব্যায়ামের সময় মিউজিক শুনতে পারেন।
– ব্যায়ামের সময় নাক দিয়ে নিঃশ্বাস নিন, মুখ দিয়ে নয়।
– ব্যায়ামের মধ্যবর্তী বিরতির সময় যেন খুব বেশি না হয়।
-একবারে সব ব্যায়াম না করে ধারাবাহিকভাবে একটি একটি করে ব্যায়াম শেষ করুন।
– ব্যায়াম চলাকালে কোনো খাবার বা পানি না খাওয়াই ভালো

তথ্যসুত্রঃ বাংলানিউজ২৪.কম

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...