সৌদি নারীরা প্রথমবারের নির্বাচনে প্রার্থী হতে পারবেন!

Kuwaiti girls give a victory sign as they stand in front of a polling station in Jahra February 2, 2012. Kuwaitis headed to the polls on Thursday for the fourth time in six years in a snap parliamentary election in which opposition candidates expect to expand their influence and push for change in the oil-exporting Gulf Arab state. REUTERS/Stephanie McGehee (KUWAIT - Tags: POLITICS ELECTIONS)

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ সৌদি নারীরা প্রথমবারের নির্বাচনে প্রার্থী হতে পারবেন! আর তাই সৌদি নারীরা প্রথমবারের মতো গত গত সপ্তাহ হতে নির্বাচনী প্রচার শুরু করেছেন।

Kuwaiti girls give a victory sign as they stand in front of a polling station in Jahra February 2, 2012. Kuwaitis headed to the polls on Thursday for the fourth time in six years in a snap parliamentary election in which opposition candidates expect to expand their influence and push for change in the oil-exporting Gulf Arab state. REUTERS/Stephanie McGehee (KUWAIT - Tags: POLITICS ELECTIONS)

তবে আচরণবিধিতে বলা হয়েছে, তাঁদের পুরুষদের হতে পৃথক থাকতে হবে। তাছাড়া নির্বাচন সংক্রান্ত কাজকর্মে নিজেদের সরাসরি সম্পৃক্ত করতে পারবেন না।

সংবাদ মাধ্যমের খবরে জানানো হয়, পুরুষনিয়ন্ত্রিত দেশটিতে প্রতিনিধি নির্বাচনের জন্য এই সিদ্ধান্তকে একটি ভালো উদ্যোগ হিসেবে বিবেচনা করা হচ্ছে।

সৌদিতে আগামী ১২ ডিসেম্বরের পৌর নির্বাচনে প্রায় ৯০০ নারী প্রার্থী হতে যাচ্ছেন বলে সংবাদ মাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে। এই নির্বাচন প্রথমবারের মতো নারীদের নিজেদের নেতৃত্বে নির্বাচন করার সুযোগ দিয়েছে।

উপসাগরীয় শহর কাতিফের এক নারী প্রার্থী নাসিমা আল-সাদহ সংবাদ মাধ্যমকে বলেন,‘আমরা দেশকে উন্নত ও সংস্কার করতে চাই, কারণ প্রত্যেকটি সিদ্ধান্ত গ্রহণ পর্বে নারীদের সম্পৃক্ততা থাকতে হবে।’

উল্লেখ্য, সৌদি আরবে পুরোপুরি ইসলামিক রাজতন্ত্র বিরাজমান। দেশটির মন্ত্রিসভায় কোনো নারী সদস্য নেই। পৃথিবীর একমাত্র দেশ সৌদি আরব সেখানে নারীরা গাড়ি চালাতেও পারেন না। বাইরে যেতে হলে নারীদের আপদ-মস্তক ঢেকে তারপর বের হতে হয়। পরিবারের পুরুষ সদস্যের অনুমতি ব্যতিত তারা ঘরের বাইরে অর্থাৎ কাজে যেতে বা বিয়ে করতেও পারেন না।

তবে এতো বাধা-বিপত্তির পরও বাদশা আবদুল্লাহ সময় ধীর গতিতে নারী অধিকারের বিস্তৃতি ঘটতে থাকে। তিনি ২০০৫ সালে পৌর নির্বাচন শুরু করেন এবং এ নির্বাচনে ভবিষ্যতে অংশগ্রহণ করতে পারবেন বলে ঘোষণা দেন।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...