স্টিফেন হকিংয়ের মতে, ‘মানব সভ্যতার ভয়ের কারণ হলো মানুষ, যন্ত্র নয়’

attends the UK Premiere of "The Theory Of Everything" at Odeon Leicester Square on December 9, 2014 in London, England.

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ কিংবদন্তি বিজ্ঞানী স্টিফেন হকিংয়ের মতে, ‘মানব সভ্যতার ভয়ের কারণ হলো মানুষ, যন্ত্র নয়’। তিনি মনে করেন, মানুষের লোভই মানবসভ্যতার ধ্বংসের একমাত্র কারণ।

attends the UK Premiere of "The Theory Of Everything" at Odeon Leicester Square on December 9, 2014 in London, England.

বিশ্বজুড়ে যন্ত্রসভ্যতার আগ্রাসনে মানবসভ্যতা কতটা সঙ্কটের মধ্যে রয়েছে, কতখানি প্রভাবিত হতে চলেছে বিশ্বের অর্থনীতি- সেই প্রসঙ্গেই এমন মন্তব্য করেছেন বিশ্বখ্যাত কিংবদন্তি এই বিজ্ঞানী৷

তিনি মনে করেন, সভ্যতার উন্নতির সঙ্গে সঙ্গে মানুষের সকল কাজে ভাগ বসাচ্ছে যন্ত্র। যন্ত্রের এই সুবিধা মানবসভ্যতার নিকট যেমন আশীর্বাদ, ঠিক তেমনই অভিশাপও। একদিকে যান্ত্রিক সুবিধা যেমন মানুষকে দিয়েছে কাঙ্ক্ষিত গতি, ঠিক অপরদিকে তেমনই কমিয়ে দিয়েছে মানুষের মূল্যও৷

বিজ্ঞানী স্টিফেন হকিংয়ের মতে, কেনোনা বর্তমানে বহু মানুষের কাজ যন্ত্র একাই করে দিতে দিচ্ছে। এই সঙ্কট আজকের নয়, মানুষ এই সমস্যা মাথায় রেখেই মূলত যন্ত্রসভ্যতাকে আহ্বান জানিয়েছে৷

এখন প্রশ্ন হলো, যন্ত্রসভ্যতার এই আগ্রাসন সারাবিশ্বের অর্থনীতিতে আসলে কী প্রভাব ফেলবে? রোবটের হাতে চলে যাওয়া বিশ্বে মানুষের অবস্থানই বা কোথায় থাকবে?

এমন প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে গিয়েই বিজ্ঞানী স্টিফেন হকিং অঙ্গুলিনির্দেশ মানুষেরই প্রবৃত্তির দিকেই। তিনি মনে করেন, যন্ত্র একসঙ্গে বেশি পরিমাণে দ্রব্য উৎপাদন করতে পারে। তবে প্রশ্ন হলো সেই সম্পদের বণ্টন কীভাবে হচ্ছে, যদি সমভাবে বণ্টিত হয়, তাহলে অবশ্যই পৃথিবীর প্রত্যেক মানুষই যন্ত্রসভ্যতার আশীর্বাদ নিয়ে ভালো জীবন-যাপন করতে পারবেন।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...