দাবা খেলাকে হারাম বলে মন্তব্য করেছেন সৌদির এক মুফতি!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ তাস জুয়া-ফড় খেলা কিংবা অন্য কোনো খেলা নয়, দাবা খেলাকে হারাম বলে মন্তব্য করেছেন সৌদি আরবের সর্বোচ্চ এক ধর্মীয় নেতা।

Saudi mufti

ইন্ডিপেন্ডেন্টের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সৌদি আরবের সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা গ্র্যান্ড মুফতি শেখ আবদুল আজিজ বিন-আব্দুল্লাহ আল-শেখ দাবা খেলাকে হারাম ঘোষণা করে বলেছেন, ‘দাবা খেলায় সময় নষ্ট করে এবং অর্থ ব্যয়েরও একটা কারণ। এটা মানুষের মাঝে শত্রুতা ও ঘৃণার সৃষ্টি করে।’ তিনি টেলিভিশন অনুষ্ঠানে করা এক প্রশ্নের জবাবে এমন কথা বলেন।

গ্র্যান্ড মুফতি শেখ আবদুল আজিজ বিন-আব্দুল্লাহ আল-শেখ এই খেলাটিকে ইসলামপূর্ব আরবের খেলা ‘মাইসির’র সঙ্গে তুলনা করেন যা কোরআন অনুযায়ী নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছিল।

যদিও তার এই ফতোয়ার মাধ্যমে অবশ্য সৌদি আরবে আইনত খেলাটি নিষিদ্ধ হবে না। কিন্তু এই ঘটনাটি নতুন বিতর্কের জন্ম দিয়েছে।

সৌদি দাবা এ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মুসা বিন থাইলি সংবাদ মাধ্যমকে জানান, মক্কায় শুক্রবার দাবা টুর্নামেন্ট পরিচালনা করার পরিকল্পনা রয়েছে তাদের। এমন এক পরিস্থিতিতে তার বিব্রত অবস্থায় পড়েছেন।

উল্লেখ্য, টুইটারে দেওয়া এক বার্তায় মুসা বিন থাইলি মন্তব্য করেছেন যে, ‘অনেক কিছুই অবৈধ ও ধর্মীয়ভাবে নিষিদ্ধ করা হয়ে থাকে এই সৌদি আরবে।’

Advertisements
Loading...