লক্ষ্মীপুরের জ্বীনের মসজিদ

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ শুভ সকাল। আজ শুক্রবার, ১১ মার্চ ২০১৬ খৃস্টাব্দ, ২৮ ফাল্গুন ১৪২২ বঙ্গাব্দ, ১ জমাদিউস সানি ১৪৩৭ হিজরি। দি ঢাকা টাইমস্ -এর পক্ষ থেকে সকলকে শুভ সকাল। আজ যাদের জন্মদিন তাদের সকলকে জানাই জন্মদিনের শুভেচ্ছা- শুভ জন্মদিন।

Laxmipur jinn mosque

যে ছবিটি আপনারা দেখছেন সেটি লক্ষ্মীপুরের জ্বীনের মসজিদের ছবি। মেঘনা ও খরস্রোতা ডাকাতিয়া নদীর মোহনা লক্ষ্মীপুর জেলার রায়পুর উপজেলার বিশাল চরাঞ্চলে এই মসজিদটি অবস্থিত।

এলাকাবাসীর মতে, ১৬৮৮ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় এই মসজিদটি। দিল্লীর শাহী জামে মসজিদের হুবহু নমুনার ১১০ ফুট দৈর্ঘ্য এবং ৭০ ফুট প্রস্থ আর মাটি হতে ১০ ফুট উঁচুতে ৩টি গম্বুজবিশিষ্ট বিখ্যাত এই মসজিদটি প্রতিষ্ঠা করা হয়।

এই মসজিদটির অন্যতম আকর্ষণীয় দিক হলো মসজিদের তলদেশে ২০ ফুট নিচে রয়েছে ৩ কামরা বিশিষ্ট গোপন ইবাদতখানা। নির্জন পরিবেশে সেখানে বসে আল্লাহর ধ্যানে মগ্ন থাকতেন মাওলানা আবদুল্লাহ। মসজিদটির ভিটির উচ্চতা ১৫ ফুট। ১৩ ধাপ সিঁড়ি ডিঙ্গিয়ে এই মসজিদে প্রবেশ করতে হয়। দেওয়ালের প্রস্থ ৮ ফুট। মসজিদের সম্মুখের জরাজীর্ণ মিনারটির উচ্চতা প্রায় ২৫ ফুট।

কথিত রয়েছে যে, মসজিদের নির্মাণ কাজ মাওলানা আবদুল্লাহর কিছু জ্বীন শিষ্য রাতের আধারে সম্পন্ন করতো। তাই এই ঐতিহাসিক মসজিদটির নাম হয়েছে জ্বীনের মসজিদ।

এলাকাবাসী এখনও বলেন যে, মসজিদের তলদেশে স্থাপিত পুকুরগুলোতে জ্বীনেরা গোসল করতো, তারা এই মসজিদে নিয়মিত নামাজ আদায়সহ জিকির-আজকার-ইবাদত করতো। এমনকি গভীর রাতে জিকিরের আওয়াজ অনেক দূর পর্যন্ত ভেসে আসতো বলে কথিত রয়েছে।

ঐতিহাসিক এই জ্বীনের মসজিদটি লক্ষীপুর জেলার রায়পুর পৌর শহর হতে ৮/৯ শ’ গজ পূর্বে পীর ফয়েজ উল্লাহ সড়কের দক্ষিণে অবস্থিত।

ছবি ও তথ্য: http://71sangbad.com এর সৌজন্যে।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...