বৌ পাওয়া যাচ্ছে না তেহরিমারিয়া গ্রামে!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ পুরুষের সংখ্যা বেশি হয়ে গেলে অনেক সময় অনেক অঞ্চলে বিবাহযোগ্য মেয়ে পাওয়া দুষ্কর হয়ে পড়ে। তবে আজকের বৌ না পাওয়ার বিষয়টি একেবারেই ভিন্ন একটি বিষয়। বৌ পাওয়া যাচ্ছে না ভারতের তেহরিমারিয়া গ্রামে!

village wife is missing-01

আসলে কি কারণে বৌ পাওয়া যাচ্ছে না? শুনলে আশ্চর্য হতে হবে। কারণ একটিই তা হলো পানির অভাব! পানি নেই বলে কোনো মেয়ে এই গ্রামে কারও বৌ হয়ে আসতে নারাজ। যে কারণে বৌ না পেয়ে হতাশ তেহরিমারিয়া গ্রামের যুবকরা।

সংবাদ মাধ্যমের খবরে জানা যায়, ভারতের মধ্যপ্রদেশ রাজ্যের ছত্রিশপুর জেলার গ্রাম হলো এই তেহরিমারিয়া। এই গ্রামের যুবকরা পড়েছেন এক মহা সংকটে। কারণ হলো তারা বিয়ের যুগ্যি কোনো পাত্রী পাচ্ছেন না। আসলে কোনো মেয়ে এই গাঁয়ের ছেলেদের বিয়ে করতে রাজিই হচ্ছে না। যে কারণে ৩২ বছর পেরিয়ে যাওয়ার পরও অবিবাহিত রয়েছেন বহু নাগরিক।

village wife is missing

মোহান যাদব ওই এলাকার এক অবিবাহিত যুবক। গত ৫ বছর ধরে তার জন্য মেয়ে খুঁজে খুঁজে হয়রান হয়ে গেছেন তার পরিবার। কারণ কোনো নারীই তার সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধতে রাজি নন। না, তার কোনো সমস্যার জন্য নয়। সমস্যা হলো গ্রামের। তাই পাত্রীপক্ষের এক কথা, ‘ওই গাঁয়ে মেয়ে বিয়ে দিবো না। সেখানে বিয়ে হলে আমার মেয়ে পানি টানতে টানতে একেবারে মরে যাবে।’ ভারতের তেহরিমারিয়া গ্রামে পানি নেই। এখানকার গ্রামের বৌ-ঝিদের পানি সংগ্রহের জন্য মাইলের পর মাইল দূরে যেতে হয়। এই সমস্যার কারণেই যাদবের মতো প্রায় শও খানেক যুবকরা বিয়ে করতে পারছেন না। ভারতের এনডিটিভিতে উঠে এসেছে এমন চিত্র।

Advertisements
Loading...