নির্বাচনে হেরে দুধ দিয়ে গোসল!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করে হেরে দুধ দিয়ে গোসল করলেন টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর উপজেলার অলোয়া ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী রহিজ উদ্দীন আকন্দ!

Lost election with milk bath

আমরা জানি নির্বাচন পরবর্তী জয়ী প্রার্থী বিজয় উল্লাস করে প্রতিক্রিয়া দেখিয়ে থাকেন। পরাজিত প্রার্থীরাও দেখান নানা ধরণের প্রতিক্রিয়া। কিন্তু এবার এর ব্যতিক্রম ঘটনা ঘটলো। এবার টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর উপজেলার অলোয়া ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী রহিজ উদ্দীন আকন্দ পরাজিত হওয়ার পর দুধ দিয়ে গোসল করে চলে এসেছেন আলোচনার কেন্দ্র বিন্দুতে।

জানা যায়, মাত্র ১৪৯ ভোটের ব্যবধানে রহিজ পরাজিত হন নৌকা প্রতীক নিয়ে নির্বাচিত আওয়ামীলীগের মূল প্রার্থী নরুল ইসলামের কাছে। এতে অনেকটা ক্ষোভ-দুঃখে দুধ গোসলের মাধ্যমে রাজনীতি হতে চিরবিদায় নেন তিনি। ভবিষ্যতে কোনো নির্বাচন না করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন সদ্য বহিস্কৃত ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি রহিজ উদ্দিন আকন্দ।

এ বিষয়ে রহিজ উদ্দীন বলেন, ‘বিগত ৫ বছর এই অলোয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হিসেবে আমি দায়িত্ব পালন করেছি। দায়িত্ব পালনকালে দু’দুবার উপজেলার শ্রেষ্ঠ ইউপি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হই। গত নির্বাচনেও জনপ্রিয়তা থাকার পরও আমাকে দল থেকে মনোনয়ন না দিলেও, আমি আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হই। সদ্য সমাপ্ত নির্বাচনে দল আমাকে মনোনয়ন না দিয়ে দিলো ঠিকাদার নুরুল ইসলামকে। নেতা-কর্মীদের চাপে এই নির্বাচনেও অংশ নিতে হয়। মাত্র ১৪৯ ভোটের ব্যবধানে আমি পরাজিত হয়েছি। তিনি পেয়েছেন ৫০৩৯ ভোট। আমাকে দেখানো হয়েছে ৪৮৯০ ভোট।’

তিনি আরও বলেন, ‘ভোটের ব্যবধান অনেক বেশি হলে আমি মানতাম অযোগ্য। আমাকে হারানো হয়েছে, তাই এ পরাজয় মেনে নিতে পারছিনা। তাই আমি ক্ষোভে দুধ দিয়ে গোসলের মাধ্যমে রাজনীতি হতে চিরবিদায় এবং ভবিষ্যতে নির্বাচন না করার ঘোষণাও দিয়েছি। দুধ দিয়ে গোসল করে আমি পবিত্র হলাম। এখন থেকে নিয়মিত পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পড়বো। যতটুকু পারি জনগণের সেবায় নিজেকে নিয়োজিত রাখবো।’

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...