শিক্ষকরা মুরগির বাচ্চা নিচ্ছেন বেতন হিসেবে!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ উজবেকিস্তানের একটি শহরে টাকার পরিবর্তে শিক্ষকদের বেতন হিসেবে দেওয়া হচ্ছে মুরগির বাচ্চা। উজবেকিস্তানের স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চল কারাকালপাকস্তানের নুকুস শহরে ঘটেছে এটি।

teacher & chicken

যুক্তরাষ্ট্র পরিচালিত রেডিও ওজদলিকের বরাত দিয়ে বিবিসি এক প্রতিবেদনে বলেছে,
উজবেকিস্তানের স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চল কারাকালপাকস্তানের নুকুস নামক শহরের শিক্ষকদের মুরগির বাচ্চা দেওয়ার কারণ হিসেবে দেশটির অর্থসংকটকেই দায়ী করা হয়েছে। শহরের শিক্ষকরা সরকারের এমন কর্মকাণ্ডকে ‘লজ্জাজনক’ বলে মন্তব্য করেছেন।

এক শিক্ষক সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, ‘গত বছর সরকার আমাদের বেতন হিসেবে আলু, গাজর এবং মিষ্টি কুমড়া দিয়েছিল। এ বছর আমাদের সদ্যোজাত মুরগির বাচ্চা নিতে বাধ্য করছে। যদি আমাদের মুরগির প্রয়োজন হয় তাহলে তো আমরা বাজার থেকেই এর চেয়ে কম দামে কিনতে পারি।’

অপর একটি সূত্র বলেছে, শিক্ষকদের বেতন বাবদ যেসব মুরগি বাচ্চা দেওয়া হচ্ছে সেগুলোর দাম আড়াই মার্কিন ডলার করে ধরা হচ্ছে, যা স্থানীয় বাজার দরের চেয়ে দ্বিগুণেরও বেশি!

উল্লেখ্য, বিগত বেশ কয়েকবছর ধরেই অর্থ সংকটে ভুগছে উজবেকিস্তান। সে কারণে দেশটিতে সরকারি কর্মকর্তাদের বেতন এবং পেনশন দিতে দেরি হচ্ছে।

গত মাসেও রাজধানী তাসখন্দে কর্মরত সরকারি কর্মচারীরা অভিযোগ করে, দুই মাস ধরে তারা কোনো বেতন পাচ্ছেন না। কারণ হিসেবে জানা যায়, ব্যাংকে নাকি কোনো অর্থই নেই।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...