দীর্ঘ ২৭ বছর পর খুলছে ইরাক-সৌদি সীমান্ত!

ইরাকের সাবেক প্রেসিডেন্ট সাদ্দাম হোসেন কুয়েত আক্রমণ করার পর দেশটির সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্নের কারণে সীমান্ত বন্ধ করে দেয় সৌদি আরব

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ ১৯৯০ সালে ইরাক-সৌদি আরবের বন্ধ করে দেওয়া সীমান্ত দীর্ঘ ২৭ বছর পর পুনরায় খুলে দেওয়ার পরিকল্পনা করছে সৌদি আরব ও ইরাক।

ইরাকের সাবেক প্রেসিডেন্ট সাদ্দাম হোসেন কুয়েত আক্রমণ করার পর দেশটির সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্নের কারণে সীমান্ত বন্ধ করে দেয় সৌদি আরব। ২৭ বছর পর সেই সীমান্ত পুনরায় খুলে দেওয়ার পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে সৌদি কর্তৃপক্ষ। সৌদি আরবের স্থানীয় গণমাধ্যমে গত মঙ্গলবার এই খবর প্রচার করে।

সৌদি ও ইরাকের সরকারি কর্মকর্তারা গত সোমবার সীমান্ত এলাকা পরিদর্শনও করেছেন। গত ২৭ বছরে কেবল হজ উপলক্ষে সীমান্তের মাত্র একটি দরজা খুলে দেওয়া হতো।

ইরাকের দক্ষিণ-পশ্চিম প্রদেশ আনবার -এর গভর্নর সোহাইব আল-রাঈ জানিয়েছেন, এই মরু এলাকা রক্ষার জন্য ইরাক সরকার সেনা মোতায়েন করেছিল। তিনি সীমান্ত খুলে দেওয়ার ব্যাপারে ও সম্পর্ক উন্নয়নে উল্লেখযোগ্য অগ্রগতির কথা জানিয়েছেন।

গভর্নর সোহাইব আল-রাঈ আরও বলেন, ইরাক ও সৌদি আরবের মধ্যে ভবিষ্যতে আরও সহযোগিতার জন্য এটি একটি শুভ সূচনা বলে তিনি উল্লেখ করেন। ইরাকের সঙ্গে যৌথ বাণিজ্য করার উদ্দেশ্যে সৌদি মন্ত্রিসভা সোমবার এই বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে।

দীর্ঘ ২৫ বছর পর ২০১৫ সালে সুন্নিদের দেশ সৌদি আরবের বাগদাদে তাদের দূতাবাস চালু করে। চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে সৌদি আরবের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আদেল আল-যুবাইর বাগদাদ সফরে গেলে সীমান্ত চালুর বিষয়ে কথা-বার্তা হয়।

উল্লেখ্য, ১৯৯০ সালের পর দীর্ঘ ২৭ বছরে সৌদি আরবের কোনো পররাষ্ট্রমন্ত্রী বাগদাদ সফর করেননি। ওই সময়ই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয় জুন মাসে এসে দুটি দেশ তাদের কূটনৈতিক সম্পর্ক উন্নয়নের চেষ্টা করবে। তারই ফলশ্রুতিতে সীমান্ত খুলে দেওয়ার পরিকল্পনা করা হয়।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...