বিশ্বের ১০ শতাংশ মানুষই নাকি বাঁহাতি!

আমাদের দেশের একজন বাঁহাতি মানুষকে সমাজে অনেক বিড়ম্বনার শিকার হতে হয়

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ মানুষ ডান হাত দিয়ে কাজ করতেই বেশি পছন্দ করে থাকে। তবে বাঁহাতির সংখ্যাও নেহায়েত কম নয়। তবে এবার বেরিয়ে এসেছে এমনই এক তথ্য। আর তা হলো বিশ্বের ১০ শতাংশ মানুষই নাকি বাঁহাতি!

তবে আমাদের দেশের একজন বাঁহাতি মানুষকে সমাজে অনেক বিড়ম্বনার শিকার হতে হয়। বাঁহাতি মানুষদের জীবনকে আরও সহজতর ও স্বাভাবিকভাবে উপস্থাপন করতে ইউরোপে কয়েক দশক পূর্ব থেকে শুরু হয় বাঁহাতি দিবস উদযাপন।

তবে আশ্চর্যের বিষয় হলো বিশ্বের নামকরা ও খ্যাতিমান ব্যক্তিদের অনেকেই বাঁহাতি। অমিতাভ বচ্চন, জুলিয়া রবার্টস, অ্যাঞ্জেলিনা জোলি, বারাক ওবামা, জর্জ বুশ, পেলে, ম্যারাডোনা। আবার বাংলাদেশের সাকিব আল হাসান, তামিম ইকবাল, মুস্তাফিজুর রহমান নামগুলো খুবই জনপ্রিয় হওয়ার কারণ হলো তাঁরা বাঁহাতি।

তবে আমাদের দেশে বাঁহাতিদের খুব সহজভাবে নেওয়া হয় না। রাজধানী ঢাকার বাসিন্দা নুসরাত জাহান বলেছেন, বাঁহাতি হওয়ার জন্য তাকে নানা ধরণের বিড়ম্বনায় পড়তে হয়েছে।

তিনি বলেছেন যে, ‘যখন হাত দিয়ে খেতে শুরু করি তখন প্রথম বিষয়টাতে গুরুত্ব দেওয়া হয়েছিল। আমি দু’হাতে খেতাম। আমাকে ডানহাতে খাওয়ার জন্য চাপ দেওয়া হতো। লেখা শুরু করার পরও ডানহাতে লেখার জন্য চাপ দেওয়া হতো। ছোটবেলাতে একটা সময় আমার বাঁহাত কিছুদিন বেঁধেও রাখা হয়েছিল!’

তবে মানুষ কেনো বাঁহাতি হয় সেটি এখনও পরিষ্কার নয়। বিশ্বের ১০ শতাংশ মানুষ বাঁহাতি। বিভিন্ন সংস্কৃতিতে তাদের নিয়ে নানা ধরনের সংস্কারও রয়েছে। বাঁহাতিদের জোর করে ডানহাতি বানানোর চেষ্টাও করা হয়ে থাকে।

কেনো বাঁহাতি হয় সে প্রশ্নে বিশেষজ্ঞরা বলেছেন, অনেকের ক্ষেত্রে এটি উত্তরাধিকার সূত্রেও হয়ে থাকে। বাংলাদেশে অনেকেই বাঁহাতিদের বেয়াদব মনে করে থাকেন। যে কারণে এই দৃষ্টিভঙ্গি থেকে বেরিয়ে আসতে হবে। এটিকে স্বাভাবিকভাবে নিলেই আর কোনো সমস্যা সৃষ্টি হবে না বলেই মনে হয়।

Advertisements
Loading...