পাকিস্তানে দাড়ির স্টাইল নিষিদ্ধ করে প্রস্তাব পাস!

অনেকেই দাড়ি স্টাইল করে ছেঁটে থাকেন। কিন্তু দাড়ি স্টাইল করে ছাঁটাই করা অনৈসলামিক কাজ

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ দাড়ি নিয়েও যেনো মানুষের মধ্যে শুরু হয়েছে নানা গবেষণা। মুসলিম দেশ হিসেবে পাকিস্তানেই নাকি ঘটেছে এমন একটি ঘটনা। দাড়ির স্টাইল নিষিদ্ধ করে প্রস্তাব পাস হয়েছে পাকিস্তানে!

অনেকেই দাড়ি স্টাইল করে ছেঁটে থাকেন। কিন্তু দাড়ি স্টাইল করে ছাঁটাই করা অনৈসলামিক কাজ। সে কারণে এটি বন্ধের দাবিতে প্রস্তাব পাস করেছে পাকিস্তানের একটি জেলা পরিষদ! পাঞ্জাব প্রদেশের দেরা গাজি খান জেলা পরিষদে এমন একটি প্রস্তাবটি তোলেন আসিফ খোসা নামে জনৈক ব্যক্তি।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস এর খবরে এমন একটি তথ্য উঠে এসেছে । আসিফ বলেছেন, সাম্প্রতিক সময় তরুণরা ফ্যাশনের নামে দাড়ির বিভিন্ন ডিজাইন করছে, এটি ইসলামী শিক্ষার বিরোধী কাজ। ইসলামে ‘ফ্রেঞ্চ কাট’ এবং আরও বিভিন্ন স্টাইলে দাড়ি ছাঁটাইয়ের কোনো অনুমতি নেই।

ওই প্রস্তাবে বলা হয়েছে, দাড়ি ফ্যাশনেবল স্টাইলে ছোট করা (ফ্রেঞ্চ কাট, গোটি) ইসলাম এবং সুন্নাহর পরিপন্থি। ওই প্রস্তাবে দেরা গাজি খানের উপকমিশনারকে দ্রুত ওই নিষেধাজ্ঞা কার্যকর করতে বলা হয়। এমনকি ‘যারা দাড়ি নিয়ে ঠাট্টা’ করে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ারও আহ্বান জানানো হয়েছে।

সংখ্যাগরিষ্ঠ ভোটেই প্রস্তাবনাটি পাস করেছে জেলা পরিষদ। পরে আরও ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য সেটি উপ-কমিশনারের কাছে পাঠানো হয়েছে।

বিশ্বের বিভিন্ন দেশে তরুণদের কাছে দাড়ি স্টাইল করা একটি জনপ্রিয় ফ্যাশনে পরিণত হয়েছে। পাকিস্তানও এর ব্যতিক্রম নয়। তবে মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ এই দেশটিতে ইসলামী বিভিন্ন অনুশাসন কঠোরভাবে পালন করা হয়ে থাকে।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...