বিলুপ্ত হয়ে যাওয়া বিশাল ম্যামথ কী আবার পৃথিবীতে ফিরে আসবে?

হাজার হাজার বছর আগে বিলুপ্ত হয়ে যাওয়া ম্যামথকে পুনরায় ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করছে বিজ্ঞানীরা

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ পৃথিবীতে যুগে যুগে বিভিন্ন প্রাকৃতিক বিপর্যয় এবং ভৌগলীক প্রতিকূল আবহাওয়ার কারণে ধ্বংস হয়ে গেছে কিছু প্রাণির অস্তিত্ব। জীবিত না পাওয়া গেলেও মৃত ওই সব প্রাণির ফসিল, কঙ্ক্যাল এবং হাঁত উদ্ধার করা হয়েছে অনেক। বিলুপ্ত হয়ে যাওয়া একটি প্রাণি হল ম্যামথ। বড় দাঁত ওয়ালা এই বিশাল আকৃতির প্রাণিটিকে অনেকেই হাতির পূর্ব জাত মনে করে থাকেন। কারণ এর আকৃতি এবং গঠন অনেকটায় হাতির মত।

বিজ্ঞানীরা ধারণা করেন হাজার হাজার বছর পূর্বে এই প্রাণিগুলো প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের কারণে চিরতরে ধ্বংস হয়ে যায়। তবে পৃথিবীতে আবার ঘটতে যাচ্ছে এই ম্যামথের আবির্ভাব। হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞানীরা দাবি করছেন ম্যামথকে আবার ফিরিয়ে আনা সম্ভব। বোস্টনে আমেরিকান অ্যাসোসিয়েশন ফর দ্য অ্যাডভান্সমেন্ট অব সায়েন্স (এএএএস) এর আলোচনায় এমনই চাঞ্চল্যকর তথ্য দিয়েছেন বিজ্ঞানীরা।

বিজ্ঞানীরা বলেন, “ একটি ম্যামথের জীবিত কোষ হাতির ডিম্বকোষের সাথে ক্লোনিং করে হাতি-ম্যামথ হাইব্রিড বাচ্চার জন্ম দেওয়া সম্ভব। পরবর্তীতে সেই হাতি-ম্যামথ হাইব্রিড প্রাণিটিকে মা হিসেবে ব্যবহার করে তার গর্ভে হাতি- ম্যামথ হাইব্রিড ডিম্বকোষের সাথে ম্যামথের জীবিত কোষ ক্লোনিং করলে একটি পূর্ণাঙ্গ ম্যামথ বাচ্চার জন্ম দেওয়া সম্ভব হবে।”

এখন প্রশ্ন হল বিলুপ্ত হয়ে যাওয়া ম্যামথের জীবিত কোষ কোথায় পাওয়া যাবে?

ধারণা করা হয়, ম্যামথেরা ৫ মিলিয়ন বছর আগে থেকে ৪,৫০০ বছর পূর্ব পর্যন্ত পৃথিবীর বিভিন্ন অংশে বসবাস করেছে । কিন্তু সর্বশেষ প্রাণীটিরও দেহাবশেষ থেকে অক্ষত ডিএনএ পাওয়া দুষ্কর। কারণ ডিএনএ খুব সহজেই ভেঙে যায়। সম্প্রতি একটা দেহাবশেষ পাওয়া গেছে, কিছু বিজ্ঞানীরা দাবি করেছেন যে এই ফসিলের জীবিত রক্তের কোষ আছে। কারণ এই ফসিলটি বরফের মধ্যে চাপা পড়েছিল। তাই এর ফসিলটি অনেকটা অক্ষত রয়েছে এবং তার মধ্যে জীবিত রক্তের কোষ রয়েছে বলে বিজ্ঞানীরা দাবি করছেন। আর এই কোষ ব্যবহার করেই তারা ম্যামথকে পূনরায় পৃথিবীতে ফিরিয়ে আনতে চায়।

Advertisements
Loading...