জেনে নিন গুগল ড্রাইভ ব্যবহারের সুবিধাসমূহ

আপনি গুগল ড্রাইভে অ্যাকাউন্ট করলেই হয়ে যাবেন এই বিশাল অনলাইন স্টোরেজের মালিক।

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ বিশ্বব্যাপী গুগলের একাধিক সেবা চালু রয়েছে। তার মধ্যে অন্যতম হল গুগল সার্চ ইঞ্জিন, জি-মেইল এবং গুগল ড্রাইভ। অনলাইন স্টোরেজের জন্য গুগল ড্রাইভের কথা না বললেই না।

ছোট বাচ্চাদের একটি বই রয়েছে, বইটির নাম ‘একের ভিতর সব’। অর্থাৎ একটি বইয়ের মধ্যে বাংলা, ইংরেজি, অংক সাধারণ জ্ঞান সহ নানা কবিতা, গল্প ইত্যাদি সব রয়েছে বলেই বইটির নাম একের ভিতর সব। গুগল ড্রাইভও ঠিক ওই বইটির মতই অর্থাৎ একের ভিতর সবকিছু রয়েছে।

তাহলে চলুন জেনে নেওয়া যাক গুগল ড্রাইভের সুবিধাসমূহঃ

১। ফ্রি অনলাইন স্টোরেজ সুবিধাঃ গুগল ড্রাইভের সবচেয়ে বড় সুবিধা হচ্ছে এখানে রয়েছে ১৫ জিবি ধারণক্ষমতা সম্পন্ন সম্পূর্ণ ফ্রি একটি বিশাল অনলাইন স্টোরেজ। আপনি একটি অ্যাকাউন্ট করলেই হয়ে যাবেন এই বিশাল অনলাইন স্টোরেজের মালিক। এখানে আপনি ইচ্ছে মত ছবি, ভিডিও, অডিও গান সহ নানা ফাইল সংরক্ষণ করে রাখতে পারবেন। এবং আপনার প্রয়োজন মত সেই গুলো আবার ব্যবহার করতে পারবেন।

২। গুগল ডকঃ আমরা সাধারণত কোন কিছু লেখার জন্য এমএস ওয়ার্ড বা টেক্সট ডকুমেন্ট ব্যবহার করি। সেই লেখাগুলো অনলাইনে পোষ্ট করা বা কাওকে পাঠাতে বিভিন্ন ঝামেলা পোহাতে হয়। অথচ গুগল ড্রাইভের মধ্যে রয়েছে গুগল ডক, যা ব্যবহার করে আপনি খুব সহজেই যেকোন লেখা অনলাইনে সেভ করে রাখা, পোষ্ট করা বা কাওকে পাঠাতে পারবেন। গুগল ডকে আপনি এমএস ওয়ার্ডের চেয়ে অনেক সহজে লিখতে পারবেন। কারণ এর ফাংশনগুলো এমএস ওয়ার্ডের চেয়ে অনেক সহজ।

৩। গুগল শীটঃ গুগল ডাইভের মধ্যে রয়েছে গুগল শীট যা আপনি এমএস এক্সেলের বিকল্প হিসেবে ব্যবহার করতে পারবেন। এর ফাংশনগুলো এমএস এক্সেলের থেকে অনেক সহজ।

৪। গুগল স্লাইডঃ গুগল স্লাইড ব্যবহার করে এমএস পাওয়ার পয়েন্টের মতই সমস্ত কাজ করতে পারবেন। এর ফাংশনগুলো অনেক সহজ যার মাধ্যমে আপনি খুব সহজেই বিভিন্ন প্রজেক্ট তৈরি করতে পারবেন। এছাড়া গুগল ড্রাইভে রয়েছে গুগল ফর্ম, গুগল ড্রইং ইত্যাদি নানা সুবিধা।

৫। শেয়ারিং সুবিধাঃ আপনি যেখানেই থাকেন না কেন আপনার অফিসের অন্যান্য কর্মীদের সাথে যেকোন ফাইল শেয়ার করে সবাই কাজ করতে পারবেন। এর জন্য ফাইল শেয়ারিং অপশন থেকে আপনার সেই কর্মীর ই-মেইল যোগ এড করার মাধ্যমে এই সুবিধা পেতে পারেন।

৬। এখানে আপনি অনলাইন বা অফলাইন উভয় সুবিধা পাবেন। নেট না থাকলেও আপনি ইচ্ছে মত অফলাইনে কাজ করতে পারবেন।

৭। যেহেতু আপনার সমস্ত ডকুমেন্ট অনলাইনে গুগল ড্রাইভে সেভ হয়ে থাকবে, তাই আপনার কম্পিউটার বা ল্যাপটপ নষ্ট হয়ে গেলে বা হারিয়ে গেলেও কোন ডকুমেন্ট হারাবে না।

৮।গুগল ড্রাইভে প্রবেশ করতে হলে আপনার নির্দিষ্ট ই-মেইল আইডি ব্যবহার করে এখানে লগ ইন করতে হবে। তাই আপনার সমস্ত ডকুমেন্ট থাকবে সম্পূর্ণ নিরাপদ এবং গোপনীয়।

৯। কম্পিউটারের হার্ডডিস্ক বা যেকোন ডিভাইস থেকে আপনি যেকোন ফাইল এই ড্রাইভে সহজে আপলোড করা বা ডাউনলোড করতে পারবেন।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...