The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

অসৌজন্য আচরণে সমালোচনার মুখে পড়লেন ইমরান খান

কিরঘিজস্তানের রাজধানী বিশকেকে সাংহাই কোঅপারেশন অর্গানাইজেশন বা ‘এসসিও’ গোষ্ঠীর রাষ্ট্রগুলির শীর্ষ সম্মেলন শুরু হয়

Imran_Khan_Pakistan_World_Leaders_rtvonline

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ আবারও চরম সমালোচনার মুখে পড়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। সৌদি আরবের পর সাংহাই কোঅপারেশন অর্গানাইজেশনের সম্মেলনে কূটনৈতিক প্রথা ভাঙার অভিযোগ তোলা হয়েছে ইমরানের বিরুদ্ধে।

অসৌজন্য আচরণে সমালোচনার মুখে পড়লেন ইমরান খান 1

গত বৃহস্পতিবার হতে কিরঘিজস্তানের রাজধানী বিশকেকে সাংহাই কোঅপারেশন অর্গানাইজেশন বা ‘এসসিও’ গোষ্ঠীর রাষ্ট্রগুলির শীর্ষ সম্মেলন শুরু হয়।

সম্মেলনের উদ্বোধনের সময় শেয়ার হওয়া একটি ভিডিওতে দেখা যায় যে, সমস্ত দেশের প্রতিনিধিরা যখন কূটনৈতিক প্রথা মেনে দাঁড়িয়ে আছেন, পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান তখন নিশ্চিন্তে নিজের আসনে বসে ছিলেন। বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্র ও সরকার প্রধানরা সম্মেলনে একের পর এক সভাকক্ষে প্রবেশের সময় সকলেই দাঁড়িয়ে সম্মান জানিয়েছেন। কিন্তু পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান সভা কক্ষে প্রবেশের পর সোজা গিয়ে নিজের আসনটিতে বসে পড়েন। ইমরান খানের পরেই প্রবেশ করেন নরেন্দ্র মোদী। ইমরান খান খুব অল্প সময়ের জন্য শুধুমাত্র একবার দাঁড়ান, যখন তাঁর নাম সম্বোধন করা হয় ঠিক তখন।

উল্লেখ্য, ইতিপূর্বে চলতি মাসের শুরুতে সৌদি আরবে ১৪তম ওআইসি সম্মেলনেও কূটনৈতিক প্রটোকল ভাঙেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। তখনও তাকে নিয়ে ব্যাপক সমালোচনা হয় যা বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছিল।

জানা যায়, ওআইসি সম্মেলন চলাকালে সৌদি বাদশা সালমান বিন আব্দুল আজিজের সঙ্গে আলাপ করছিলেন ইমরান খান। এক পর্যায়ে বাদশা সালমানের অনুবাদককে কিছু একটা বলার পর তিনি সেখান থেকে চলে যান। বক্তব্য অনুবাদ করে সৌদি বাদশাকে বুঝিয়ে বলারও সুযোগ দেননি পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী। ওই বিষয়টি নিয়ে ব্যাপক সমালোচনা হয়।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...