The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

অ্যালেক্সা বন্ধনে আমাজন

আমাজন আমাদের প্লানেট এর সবথেকে বড় অনলাইন শপিং সেন্টার

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ আধুনিকায়নের এই যুগে যেখানে কম্পিউটার ইন্টারনেট ব্যবহার করে বিভিন্ন ই-কমার্স ও নানাবিধ অনলাইন শপিং এর মাধ্যমে কেনাকাটা হচ্ছে নিমিষেই সেখানে আমাজনের কথা জানে না এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া যাবে না।

অ্যালেক্সা বন্ধনে আমাজন 1

আমাজন আমাদের প্লানেট এর সবথেকে বড় অনলাইন শপিং সেন্টার। কথায় আছে অ্যামাজনে নেই এমন কিছু পাওয়া খুবই মুশকিল। আমাজনে যেন দুনিয়ার সকল জিনিস পাওয়া যায় নিমেষেই। ঠিক এমন অবস্থায় অনলাইন শপিং এর ক্ষেত্রে যেখানে আমাজন সর্বশীর্ষে সেখানে সবকিছুতেই যুক্ত হতে যাচ্ছে মার্কিন প্রযুক্ত এই প্রতিষ্ঠান। আমাজনের এমন একটি আবিষ্কারের মধ্যে অ্যালেক্সা একটি চমকপ্রদ ভার্চুয়াল বুদ্ধিমান সহকারি সফটওয়্যার। বর্তমানে আমাজনের পরিচয় দাঁড়িয়েছে সবকিছুতেই অ্যালেক্সা যুক্ত কম্পানি। অ্যালেক্সা একটি কৃত্রিম বুদ্ধিমান ভার্চুয়াল সফটওয়্যার যা অ্যামাজনের হতে তৈরি। অ্যালেক্সা এমন একটি হার্ডওয়ার যা আমাজনের দারুণ অগ্রযাত্রায় ব্যবহারকারীদের কাছে টেনে আনছে। অ্যালেক্সা গ্রাহকের সঙ্গে সরাসরি সম্পর্ক বাড়িয়ে দিচ্ছে আমাজনের এতে ভবিষ্যতে আমাজন আরো বেশি সফলতা অর্জন করতে পারবে বলে ধারণা করছেন বিশেষজ্ঞরা।

সম্প্রতি আমাজন নতুন মডেলের একটি ইকো ডিভাইস ও অ্যালেক্সার নতুন ফিচার উদ্ভাবন ও ঘোষণা প্রদান করে যা গত বুধবারে হার্ডওয়্যার ঘোষনার অনুষ্ঠানের মাধ্যমে সম্পন্ন করা হয়। এই ঘোষণায় অ্যাপলের এয়ারপোর্টের প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে ইকো বাটসের ঘোষণাও করা হয় যার দ্বারা অ্যালেক্সা স্মার্ট হোম এর বাইরে বের হয়ে আসতে পারবে খুবই সহজে। এটি গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট এর চেয়েও আরো বেশি কার্যকর ও সহকারি হবে বলে আশা প্রকাশ করছেন আমাজন কর্তৃপক্ষ। পাশাপাশি নতুন বিভিন্ন ডিভাইসের মধ্যে আমাজনের স্মার্টগ্লাস ইকো ফ্রেমস পরিধানযোগ্য দারুন একটি পণ্য। পরিধানযোগ্য প্রযুক্তির দুনিয়ায় অ্যাপলের আধিপত্যকে টক্কর দেয়ার ক্ষমতা রাখে বলে ধারণা করছে সকলেই এই ইকো ফ্রেমস প্রযুক্তিকে। ইকো ফ্রেমসের মধ্যে আলেক্সা ভয়েস অ্যাসিস্ট্যান্ট বিল্টিন করা হয়েছে যার দ্বারা খুব সহজেই অ্যালেক্সা কে নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব। নিয়ন্ত্রণ করার সময় আপনি যেকোন জায়গা থেকে যেকোনো সময় এর সাথে কথা বলতে পারবেন এবং কমান্ড প্রদান করতে পারবেন।

ইকো ফ্রেমসের ফ্রেমে কোন প্রকার ক্যামেরা নেই তাই এর দ্বারা ভিডিও অথবা ছবি তোলা যাবে না আর এটিকে ইতিবাচক হিসেবে দেখছে আমাজন। সম্প্রতি খুব কম সংখ্যক মানুষ ১৮০ ডলার এটি হাতে পাচ্ছেন। আমাজনের এসব কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা কেন্দ্রিক উদ্ভাবনের ফলে অনেকেই মনে করছেন এই এআই কেন্দ্রিক প্রতিষ্ঠান হিসেবে আমাজনকে সামনে এগিয়ে যাওয়া উচিত। আমাজনের সাথে সারা দুনিয়ার বন্ধন সৃষ্টি করা সহজ হবে অ্যালেক্সা দ্বারা বলে অনেকেই মনে করছেন। ইতিমধ্যে অ্যালেক্সা তার সক্ষমতা প্রকাশ করেছে। বিভিন্ন ভাষায় অ্যালেক্সা তার সমর্থন প্রকাশ করে থাকেন এবং স্মার্ট নিরাপত্তা পণ্যকে যুক্ত করার সুবিধা প্রকাশ করেছে। গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট এর সাথে টক্কর দিয়ে সামনে এগিয়ে যেতে পারে অ্যালেক্সা খুব সহজেই। ইকো বাটসের আবিষ্কারের ফলে অ্যালেক্সা কে সঙ্গে নিয়ে চলার ক্ষমতা ও সুযোগ তৈরি হয়েছে।

ইকো ফ্রেমস পরিহিত ব্যক্তি ভয়েস অ্যাসিস্ট্যান্ট দ্বারা কমেন্ট করলে ওই চশমা সেই কমান্ড শুনে তার উপযুক্ত জবাব ব্যক্তির কাছে হাজির করবে। চমকপ্রদক এই আবিষ্কার খুবই নিখুঁতভাবে তৈরি করা হয়েছে। এই ফ্রেমে বিশেষ আধুনিক মাইক্রোফোন যুক্ত করা হয়েছে যা এমনভাবে যুক্ত করা হয় যে এর কথা বাইরের অন্য কেউ শুনতে না পারে। এই ফ্রেম ব্যবহারের পাশাপাশি দেখতে খুব মনমুগ্ধকর যা অল্প সময়ে গ্রাহকদের কাছে একটি বিশেষ চাহিদা হিসেবে প্রকাশ পেয়েছে।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...