The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

গবেষণা বলছে: ভিটামিন ‘ডি’ স্বল্পতার কারণে করোনায় মৃত্যু বেশি ঘটছে

সবচেয়ে বেশি করোনা ঝুঁকিতে রয়েছে সূর্যের আলোবঞ্চিত অর্থাৎ ‘নর্ডিক’ দেশগুলো

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ যাদের শরীরে ভিটামিন ‘ডি’ স্বল্পতা রয়েছে তাদের করোনা ভাইরাসে মারা যাওয়ার ঝুঁকি বেশি বলে মনে করছেন একদল গবেষক।

গবেষণা বলছে: ভিটামিন ‘ডি’ স্বল্পতার কারণে করোনায় মৃত্যু বেশি ঘটছে 1

গবেষকরা বলছেন, সবচেয়ে বেশি করোনা ঝুঁকিতে রয়েছে সূর্যের আলোবঞ্চিত অর্থাৎ ‘নর্ডিক’ দেশগুলো। যুক্তরাজ্যের কুইন এলিজাবেথ হাসপাতাল ফাউন্ডেশন ট্রাস্ট ও ইংল্যান্ডের ইস্ট অ্যাঙ্গলিয়া বিশ্ববিদ্যালয় পরিচালিত এক গবেষণার পর তারা এমনটি বলেছেন। গবেষণায় তারা দেখতে পেয়েছেন যে, করোনার সংক্রমিত হওয়া মৃত্যুর সঙ্গে ভিটামিন ‘ডি’র মাত্রার উল্লেখযোগ্যভাবে সম্পর্ক রয়েছে। ইউরোপের ২০টি দেশে করোনায় মৃত্যুর হারের সঙ্গে ভিটামিন ‘ডি’ স্বল্পতার কারণ বের করার চেষ্টাও করেন তারা।

গবেষকরা বলছেন, করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ থেকে রক্ষা পেতে ভিটামিন ‘ডি’ সাপ্লিমেন্ট দেওয়ার পরামর্শ দেওয়া যেতে পারে। তবে ওই গবেষণাটির পিয়ার রিভিউ করা হয়নি।

ইতিপূর্বেও এক গবেষণায় এমন দাবি করে বলা হয়েছিল যে, ভিটামিন ‘ডি’ পর্যাপ্ত থাকলে রেসপিরেটরি সংক্রমণের ঝুঁকি অনেক কম থাকে।

এদিকে চলতি মাসের শুরুর দিকে ট্রিনিটি কলেজ ডাবলিন এক গবেষণায় জানানো হয় যে, সংক্রমণের সময় রেসপিটেরি সংক্রমণ ঠেকাতে ও রোগপ্রতিরোধ ব্যবস্থাকে শক্তিশালী করতে ভিটামিন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে। এই গবেষকরা জানিয়েছেন, যারা ভিটামিন ‘ডি’ সাপ্লিমেন্ট গ্রহণ করে তাদের বুকে সংক্রমণের ঝুঁকি অর্ধেকের বেশি কমে যেতে পারে।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...