The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

কর্মস্থলের পোশাকটি হোক আরামের

প্রায় প্রতিদিনই বাসার বাইরে যেতে হয় তাদের জন্য একটু ঢিলে-ঢালা পোশাক পরাই উওম

গরমের প্রকটে যখন সবার নাজেহাল অবস্থা তখন মাথায় রাখতে হবে কর্মস্থলের পোশাকটি যেন হয় খুব আরামদায়ক কিন্তু আরামদায়ক হবার সাথে পোশাকটিতে ফ্যাশনেবল এবং আধুনিকতার ছোঁয়া রাখতে চায় সবাই।

তাই যে সকল আপুদের ক্লাস বা কর্মস্থলে যাবার জন্য প্রায় প্রতিদিনই বাসার বাইরে যেতে হয় তাদের জন্য একটু ঢিলে-ঢালা পোশাক পরাই উওম কিন্তু এটাও সত্যি যে অনেকে আবার ফিটিং পোশাক পরিধান করতে পছন্দ করেন, তাই গরমে স্বস্তি এবং ট্রেন্ডি লুক একসাথে পেতে আপনার পোশাকের তালিকায় থাকতে পারেঃ

    কুর্তি
    ফতুয়া
    কামিজ-পালাজো

আজকাল বিভিন্ন ডিজাইনের মান ও রুচিসম্মত ফতুয়া ,সিঙ্গেল কামিজ-পালাজো বা কুর্তি বাজারে রয়েছে।এছাড়া নিজস্ব পছন্দানুযায়ী যেকোন ডিজাইনের কুর্তি,ফতুয়া,কামিজ-পালাজো সহজেই দর্জি হতে বানিয়ে পরা যেতে পারে।

কুর্তি

গরমে আজকাল প্রায় সব বয়সী মেয়েদের পছন্দের পোশাকের তালিকায় রয়েছে কুর্তি। তাই কর্মব্যস্ততার দিনটি স্বস্তিতে কাটাতে চাইলে হালকা রঙের নরম কাপড়ের আরামদায়ক বিভিন্ন ফ্যাশনেবল কুর্তি পরতে পারেন। কুর্তির ডিজাইন বা রং এর সাথে ম্যাচিং করে ফ্যাশেনেবেল প্যান্ট,পালাজো, জেগিন্স কিংবা চুড়িদার পরা যেতে পারে। বাজারে এখন রং,ডিজাইন আর ভিন্ন কাপড় ভেদে বিভিন্ন দামের কুর্তি পাওয়া যায়। আপনার কর্মক্ষেএে নিজেকে একটু আলাদা এবং স্বাচ্ছন্দ্য অনুভূতি দেয়ার জন্য ফ্যাশনেবল কুর্তি প্রাধান্য পেয়ে থাকে।

ফতুয়া

অনেকের কাছে ফ্যাশনেবল পোশাক মানে ক্যাজুয়াল পোশাক। তাই ফ্যাশন এবং ক্যাজুয়াল পোশাক একসাথে পরার জন্য ফতুয়া হতে পারে আপনার তালিকায় অন্যতম। অফিস কিংবা অফিসের বাইরে, তীব্র গরমে প্যান্ট বা কালারফুল পালাজো বা জিন্স প্যান্ট এর সাথে ভিন্নধাঁচের ফতুয়া আপনাকে দিবে একটি ক্রিয়েটিভ এবং স্টাইলিশ লুক।

সিঙ্গেল কামিজ-পালাজো

মেয়েদের পছন্দের পোশাকের তালিকায় বরাবরই কামিজ প্রাধান্য পেয়ে থাকে। কামিজের সাথে ভিন্ন ভিন্ন স্টাইলের সালোয়ার,পালাজো বা চুড়িদার পরতে সবাই পছন্দ করে। এই কামিজ-সালোয়ার,পালাজো যেমন দেশীয় ঐতিহ্য প্রকাশ করে তেমনি অনেক মানানসই এবং ফ্যাশনেবল লুক দেয়। তাছাড়া অনেকেই এখন দেশীয় ঐতিহ্য কামিজ- পালাজো বা চুড়িদার পরে খুব স্বাচ্ছন্দ্যের সাথে বিভিন্ন মিটিং, সেমিনারে আত্মবিশ্বাসের সাথে যোগদান করছে।

কর্মস্থলে ফ্যাশন এবং আরাম এই দুটো বিষয়ই লক্ষ্য রাখা অতি জরুরি। তাই খুব দামি বা ভারি কাপড়ের পরিবর্তে সাধারন রুচিশীল পোশাক পরিধান করুন, যা আপনার মানসিক এবং শারীরিক সুস্থতার সাথে সাথে আপনার ব্যক্তিত্বকেও আকর্ষণীয় করে তুলবে।

# লেখক: মালিহা হাবিব

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...