The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

টিপু সুলতানের নাতনি নূরের ছবি দেখা যাবে ব্রিটিশ মুদ্রায়!

নতুন মুদ্রায় আসতে পারে এমন কয়েকটি নামের মধ্যে রয়েছেন নূর এনায়েত খান

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ প্রথমবারের মতো ব্রিটিশ মুদ্রায় আসতে চলেছে কৃষ্ণাঙ্গ ও সংখ্যালঘু মানুষের মুখ। ব্রিটিশ সংবাদ মাধ্যম ডেইলি মেইল সম্প্রতি এই খবর প্রকাশ করে।

টিপু সুলতানের নাতনি নূরের ছবি দেখা যাবে ব্রিটিশ মুদ্রায়! 1

জানা গেছে, নতুন মুদ্রায় আসতে পারে এমন কয়েকটি নামের মধ্যে রয়েছেন নূর এনায়েত খান। তিনি ব্রিটিশ ভারতের মহিশূর রাজ্যের শাসনকর্তা টিপু সুলতানের বংশধর। ব্রিটিশদের বিরুদ্ধেও যুদ্ধ করেছিলেন স্বাধীনতাকামী শাসক টিপু সুলতান। নূরের বাবা ইনায়েত খানের জন্ম ভারতের গুজরাটের বরোদায়। তার নানা ছিলেন বিখ্যাত সঙ্গীতশিল্পী ওস্তাদ মাওলা বখশ খান। মাওলা বখশ খানের স্ত্রী কাসিম বিবিও টিপু সুলতানের নাতনি ছিলেন।

এবার সবকিছু ঠিক থাকলে শের-ই-মহীশুর টিপু সুলতানের বংশধর নূর এনায়েত খান ঠাঁই করে নেবেন ব্রিটিশ মুদ্রাতে। এই সংক্রান্ত একটি প্রস্তাব ভারতীয় বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ অর্থমন্ত্রী ঋষি সুনাক পর্যালোচনা করেছেন।

জার্মানির দাখাউ কনসেনট্রেশন ক্যাম্পে ১৯৪৪ সালের ১৩ সেপ্টেম্বর মাথায় গুলি করে হত্যা করা হয় নূর এনায়েত খানকে। ওই সময় তার বয়স হয়েছিল মাত্র ৩০ বছর। নাৎসি ক্যাম্পে মারা যাওয়ার সময় তিনি শুধু বলেছিলেন– লিবের্ৎ। ফরাসিতে যার অর্থ হলো– স্বাধীনতা! নূর ব্রিটিশ গুপ্তচর ছিলেন। গুলি করে মারার আগে নূরকে নির্মমভাবে পিটিয়ে আহত করা হয়। মৃত্যুর ৫ বছর পর ব্রিটেনের সর্বোচ্চ নাগরিক সম্মান ‘জর্জ ক্রস’ দেওয়া হয়েছিল নূর এনায়েত খানকে। নূর এনায়েত খান সেই মহিয়সি চার নারীর একজন যিনি এমন সম্মান পেয়েছেন। মরনোত্তর ‘ক্রোয়া দ্য গ্যের’ (ফ্রান্সের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ সামরিক সম্মানও দেওয়া হয় তাঁকে। লন্ডনের গর্ডন স্কোয়ারেও নূর এনায়েত খানের একটি মূর্তি রয়েছে।

নূর এনায়েত খান ছাড়াও স্মারক মুদ্রায় স্থান পেতে পারেন ক্রিমিয়ার যুদ্ধে নিহত কৃষ্ণাঙ্গ নার্স মেরি সিকোল, প্রথম বিশ্বযুদ্ধে লড়াই করা গোর্খা রেজিমেন্টের কুলবীর থাপা প্রমুখও।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর

অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

Loading...