The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

উবার বাংলাদেশে চালু করলো নতুন সেবা

কোনো বিষয় নিয়ে মতবিরোধ কিংবা গাড়ির সমস্যায় যাত্রীরা উবারের সেফটি টিমের প্রতিনিধির সঙ্গে সরাসরি কথাও বলতে পারবেন

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ যাত্রীদের সর্বোচ্চ নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে এবং প্রতিনিয়ত যাত্রীদের যাতায়াত অভিজ্ঞতাকে আরও সুন্দর করতে বাংলাদেশে উবার একটি সার্বক্ষণিক সেফটি হেল্পলাইন নম্বর চালু করেছে।

উবার বাংলাদেশে চালু করলো নতুন সেবা 1

উবার অ্যাপে এই সেফটি টুলকিটের এসওএস ৯৯৯ বাটন, যা ব্যবহারকারীদের প্রয়োজনীয় মুহূর্তে সরাসরি আইন প্রয়োগকারী সংস্থার সঙ্গেও যুক্ত করে, সেইসঙ্গে এখন থেকে সেফটি হেল্পলাইন নম্বরও যুক্ত হবে।

এক বিজ্ঞপ্তিতে উবার জানিয়েছে যে, নতুন সেফটি হেল্পলাইন নম্বরের মাধ্যমে যাত্রার সময় জরুরি বা ছোটোখাটো সমস্যা দেখা দিলে, যেমন চালক কিংবা যাত্রীর কোনো বিষয় নিয়ে মতবিরোধ কিংবা গাড়ির সমস্যায় যাত্রীরা উবারের সেফটি টিমের প্রতিনিধির সঙ্গে সরাসরি কথাও বলতে পারবেন। শুধু একটি ট্যাপের মাধ্যমেই যাত্রীরা বাংলা কিংবা ইংরেজি যেকোনো ভাষায় উবারের সেফটি ইনসিডেন্ট রেসপন্স টিমের সঙ্গে যুক্তও হতে পারবেন, যেখানে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত প্রতিনিধিরা সার্বক্ষণিক এই সেবাটি দেবেন।

তবে উবার সেফটি হেল্পলাইন নম্বরটি ন্যাশনাল ইমার্জেন্সি হেল্পলাইন ৯৯৯-এর বিকল্প নয়। তবে এটি যাত্রী এবং চালকদের প্রয়োজনীয় মুহূর্তে জরুরি সেবা পৌঁছে দিতে সহায়ক ভূমিকা পালন করবে বলে আশা করা হচ্ছে।

এই বিষয়ে উবারের ভারত ও দক্ষিণ এশিয়ার সাপ্লাই এবং ড্রাইভার অপারেশন্সের প্রধান পভন ভাইস বলেছেন, ‘আমাদের নতুন সার্বক্ষণিক সেফটি হেল্পলাইন নম্বরটি যাত্রীদের যেকোনো সময়, দিনে হোক কিংবা রাতে, সেফটি টিমের সঙ্গে যুক্ত হতে সাহায্য করবে। যে কারণে এখন থেকে উবার ব্যবহার হবে আরও নিরাপদ এবং স্বস্তির যাত্রা। এই হেল্পলাইন নম্বরটি মূলত ব্যবহারকারীদের ফিডব্যাকের ভিত্তিতেই চালু করা হয়েছে এবং এই নিরাপত্তা সংযোজনটি উবারের ব্যবহারকারীদের নিরাপদ রাখার বিষয়ে আমাদের প্রতিশ্রুতিকেও পুনর্ব্যক্ত করে বলে আমরা মনে করি।’

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর

অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...