The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

রেসিপি: গরুর গোশতের সুস্বাদু শাহী রেজালা

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ ঈদের দিন আজ আপনাদের জন্য রয়েছে স্পেশাল রেসিপি। গরুর গোশতের সুস্বাদু শাহী রেজালা। এটি হতে পারে বিশেষ আয়োজন।

গরুর গোশতের রেসিপিতে একটু ভিন্নতা আনলে স্বাদেও আসবে ভিন্নতা। যা খুব সহজেই মন কেড়ে নেয়। তেমনই একটি রেসিপি হলো শাহী রেজালা। এই পদটি আপনি রুটি, পরোটা কিংবা লুচি দিয়েও খেতে পারেন। এবার তাহলে গরুর গোশতের শাহী রেজালা রেসিপি তৈরির প্রস্তুত প্রণালী জেনে নিন।

উপকরণ

১ কেজি গরুর গোশত
১ টেবিল চামচ আদা বাটা
১ চা চামচ রসুন বাটা
১ চা চামচ ধনে বাটা
১ চা চামচ জিরা বাটা
১/২ চা চামচ হলুদ গুঁড়া
১ কাপ কাঁচামরিচ
১ কাপ পেঁয়াজ কুঁচি
১ টেবিল চামচ পোস্তদানা
২/১ কাপ টক দই
২/১ কাপ তেল
১ টেবিল চামচ গোলাপজল।

প্রস্তুত প্রণালী

তেল, ঘি, পেঁয়াজ কুঁচি এবং কাঁচামরিচ ছাড়া গোশত ছোট ছোট টুকরো করে সকল মসলা মাখিয়ে অন্তত ৩/৪ ঘণ্টা ফ্রিজে রেখে দিতে হবে। তারপর হাড়িতে তেল, ঘি দিয়ে পেঁয়াজ কুঁজি বেরেস্তা করে তুলে নিয়ে গোশত ভালো করে কষাতে হবে। ভালো করে কষানো হয়ে গেলে ২-৩ কাপ পানি দিয়ে ঢেকে সিদ্ধ না হওয়া পর্যন্ত এটি হালকা আঁচে রেখে দিন। গোশত সিদ্ধ হলেই আগুন বন্ধ করে ফেলুন। এখন তৈরি সুস্বাদু গরুর গোশতের শাহী রেজালা। এবার গরম গরম পরিবেশন করুন।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...