The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

বাসায় করতে পারবেন এমন পাঁচটি প্রয়োজনীয় ব্যায়াম

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক ॥ বিভিন্ন ধরনের ব্যায়াম রয়েছে যা আপনি আপনার সুস্থতার জন্য ঘরেই করতে পারেন। এই ব্যায়ামগুলো করার জন্য আপনার যেমন লাগবে না কোন ইন্সট্রাক্টর তেমনি আপনি থাকবেন সুস্থ। আজ আমরা দি ঢাকা টাইমসের পাঠকদের জন্য তুলে ধরবো এমনি কিছু ঘরেই করা যায় ব্যায়াম।


pushup.png

১। বুকডাউনঃ

ঘরে করা ব্যায়ামের মধ্যে এটি খুবই জনপ্রিয়। এই ব্যায়ামে কাঁধ এবং হাতের উপর যথেষ্ট চাপ পড়ে যা হাত এবং কাঁধের মাংসপেশীকে আরো দৃঢ় করে। এই ব্যায়ামের জন্য আপনার পা কে পিছনের দিকে সোজা ছড়িয়ে দিন তারপর দুইহাতকে সামনে প্রসারিত করে পিঠ সোজা রেখে বুকডাউন দিন। দেখবেন হাতের মাংসপেশী বেশ শক্তিশালী হয়ে উঠছে।

Squats_labeled

২। স্কোয়াটসঃ

এর আগে দেখালাম কাঁধ এবং হাতের ব্যায়াম। কিন্তু আপনার যদি পেটের ব্যায়ামের বেশি প্রয়োজন হয় তবে কি করবেন। স্কোয়াটস হলো এমনি একটি ব্যায়াম যা আপনার পেটের উপর প্রচুর চাপ সৃষ্টি করে পেটে জমে থাকা বাড়তি চর্বিকে দূর করবে। এর জন্য যা করবেন তা হলো সোজা হয়ে দাঁড়িয়ে হাতদুটোকে সামনের দিকে প্রসারিত করে দিন। তারপর ধীরে ধীরে বসুন। আবার ধীরে ধীরে দাঁড়িয়ে যান। এভাবে কয়েকবার করুন।

abdominal-crunch-with-raised-legs-1

৩। এবি ক্রাঞ্চেচঃ

এবি ক্রাঞ্চেচ একটি কঠিন কিন্তু বেশ কার্যকর একটি ব্যায়াম। এই ব্যায়ামে শরীরের উপরের অংশে বেশ চাপ পড়ে। এই ব্যায়ামটির জন্য আপনি শোয়া অবস্থায় আপনার হাতদুটোকে মাথার পেছনের দিকে নিয়ে আঁকড়ে ধরুন। তারপর কিছুটা দ্রুতগতিতে নিজেকে তুলুন আবার শুয়ে পড়ুন আবার তুলুন। এভাবে কয়েকবার করুন।

skimble-workout-trainer-exercise-partner-leg-lifts-2_iphone

৪। লেগ লিফটিংঃ

লেগ লিফটিং এমন একটি ব্যায়াম যা আপনার সারা শরীরের রক্ত চলাচলের গতিকে সচল রাখবে। এই ব্যায়ামটির জন্য আপনি শুয়ে পড়ুন আপনার বাসার পরিস্কার ফ্লোরে। তারপর আপনার পা দুটিকে শরীরের উপরের অংশ স্থির রেখে ধীরে ধীরে উপরে তুলুন। আবার ধীরে ধীরে নিচে নামিয়ে আনুন।

86534105

৫। আড়মোড়া ভাঙ্গাঃ

শরীরের আড়মোড়া ভাঙ্গাও একটি ব্যায়াম। এটিকে হালকা দৃষ্টিতে নিবেন না। ঘুম ভেঙ্গে উঠার পর হালকা ভাবে আড়মোড়া ভাঙ্গুন। এতে করে শরীরের জড়তা কেটে যাবে। নিজেকে আরো বেশি ঝরঝরে লাগবে।

ঘরে ব্যায়াম করার সময় কিছু বিষয়ের দিকে খেয়াল রাখুন যে, অতিরিক্ত সময় ধরে ব্যায়াম করতে যাবেন না। শরীরের উপর যদি অতিরিক্ত চাপ অনুভুত হয় তবে সেই ব্যায়াম করতে যাবেন না। আর ধীরে ধীরে ব্যায়ামের জন্য সময় বাড়াতে থাকুন।

তথ্যসূত্রঃ টাইমসঅবইন্ডিয়া

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...