রুবেলের বিরুদ্ধে মামলা: আইনজীবির সঙ্গে হ্যাপীও মামলা থেকে সরে আসতে চান

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ রুবেলের বিরুদ্ধে মামলায় আইনজীবির সঙ্গে হ্যাপীও মামলা থেকে সরে আসতে চান। হ্যাপীর দায়ের করা মামলাটি তার আইনজীবি কুমার দেবুল দে আর পরিচালনা করবেন না বলে সিদ্ধান্ত জানিয়ে দিয়েছেন।

Ruble Happy & sued

ক্রিকেটার রুবেল হোসেনের বিরুদ্ধে চিত্রনায়িকা নাজনীন আক্তার হ্যাপীর দায়েরকৃত মামলাটি তার আইনজীবি কুমার দেবুল দে আর পরিচালনা করবেন না বলে সিদ্ধান্ত জানিয়ে দিয়েছেন হ্যাপীকে। হ্যাপীও স্পষ্টভাবেই জানিয়েছেন তিনি নিজেও মামলাটি পরিচালনা করতে ‘ইচ্ছুক’ নন। অবশ্য আগেও হ্যাপী এমন মনোভাব প্রকাশ করেছিলেন।

গতকাল ইংল্যান্ডের বিপক্ষে রুবেলের দুর্দান্ত বোলিং পারফরম্যান্সের পর আইনজীবি কুমার দেবুল দে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে স্ট্যাটাস দেন, ‘এখন থেকে আমি আর হ্যাপীর আইনজীবি নই। শুভেচ্ছা বাংলাদেশ ক্রিকেট দল!’

তিনি ওই স্ট্যাটাসে আরও লিখেছেন ‘বাংলাদেশের ক্রিকেট সমর্থকদের জ্ঞাতার্থে জানাচ্ছি যে, একজন পেশাজীবী হিসাবে হ্যাপীর পক্ষে মামলা পরিচালনার দায়িত্ব নিয়েছিলাম। বাংলাদেশের এহেন সফলতায় রুবেলের বিপক্ষে মামলায় লড়ার আমার আর ইচ্ছে নেই এবং তাই হ্যাপীর আইনজীবি হিসাবে এখুনি নিজের নাম প্রত্যাহার করে নিলাম।’

হ্যাপী এ বিষয়ে বলেন, ‘দু’সপ্তাহ আগেই আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছি রুবেলের বিরুদ্ধে মামলাটি আর পরিচালনা করতে চাই না। আমার দায়ের করা মামলায় রুবেল যখন জামিন পেয়ে গেলো, তখন আমার আইনজীবি ব্যারিস্টার পারভেজ আহমেদ ও কুমার দেবুলের তো কোনো কাজ ছিল না। শুধু নামেই তারা এই মামলার আইনজীবি ছিল। আর আমি যখন বলেই দিয়েছি মামলাটি আর চালাবো না, দেবুলের এমন বক্তব্যের তো কোনো মানে নেই।’

উল্লেখ্য, ঢাক-ঢোল পিটিয়ে গত বছরের ১৩ ডিসেম্বর হ্যাপী রুবেলের বিরুদ্ধে মিরপুর থানায় ধর্ষণের মামলা করলেও সম্প্রতি প্রকাশিত ফরেনসিক রিপোর্টে ধর্ষণের কোনো আলামত মেলেনি।

রুবেলের মামলা থেকে সরে আসছেন হ্যাপী?” শিরোনামে দি ঢাকা টাইমস এ একটি সংবাদ গত ৪ মার্চ প্রকাশিত হয়।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...