The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

দাঁতের যত্ন নেবেন কিভাবে যেনে নিন

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ দাঁত থাকতে দাঁতের মর্ম যে না বোঝে সে পরে পস্তায়। এমন কথা আমরা সব সময় শুনে থাকি। কিন্তু এই কথাটি বাস্তবেও সত্য। সময় থাকতে দাঁতের যত্ন নেবেন কিভাবে সে বিষয়ে যেনে নিন।

Problems with teeth

দাঁত আমাদের একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। খাবার খাওয়ার জন্য দাঁত মুখের একটি গুরুত্বপূর্ণ এবং অতি জরুরি প্রত্যঙ্গও বটে। দাঁতের সঙ্গে শরীরের অনেক অসুখ-বিষুখও নির্ভর করে। দাঁতের এনামেল এবং স্বাস্থ্য ঠিক রাখলে সুন্দর লাগার পাশাপাশি শরীর-স্বাস্থ্যও ভালো থাকে। আর সেজন্য প্রথমেই প্রয়োজন প্রতিদিন রাতে ঘুমানোর আগে ও ভোরে ঘুম থেকে উঠার পর ভালো করে দাঁত ব্রাশ করা।

Problems with teeth-2

সম্প্রতি জার্মানীর একজন দন্ত বিশেষজ্ঞ বলেছেন, ‘প্রতিদিন চা খাওয়া দাঁতের স্বাস্থ্যের জন্য ভালো। কারণ চায়ের মধ্যে প্রচুর ফ্লোরাইড রয়েছে, এতে করে দাঁতের ওপর এ্যাসিড উপাদান সৃষ্টি প্রতিরোধ করে।

চা দাঁতের কি উপকার করে

# চায়ের ফ্লোরাইড গরম পানির সঙ্গে মেশার পর দাঁতের ওপর শক্ত প্রলেপ তৈরি করে থাকে।
# এক লিটার লাল চায়ের মধ্যে ২ মিলিগ্রাম ফ্লোরাইড থাকে।
# প্রতি কেজি শুষ্ক চায়ের মধ্যে ৪০ হতে ৩৩০ মিলিগ্রাম পর্যন্ত ফ্লোরাইড থাকে। এটি অন্য যে কোনো উদ্ভিদের চেয়ে ১০ গুণেরও বেশি।
# চা গবেষণা হতে দন্ত গবেষকরা দেখেছেন, চীনের উলোং চা এবং সবুজ চায়ের মধ্যে ফ্লোরাইডের পরিমাণ অনেক বেশি।
# চায়ের ভেতরের পোলিফেনল উপাদান দাঁতে পোকাধরা রোধ করে।
# নানা ধরনের মিষ্টি খাবার খাওয়ার পর মুখে চিনির উপাদান বেড়ে যায় যা হতে মুখে ও দাঁতে নানা ধরনের জীবানু তৈরি হয়।
# প্রতিদিন ৫ বার এবং প্রতিবার ৩০ সেকেন্ড সময় নিয়ে লাল চা দিয়ে কুলকুচি করে মুখ পরিস্কার করে ফেলুন। তাতে দাঁতের ওপরে জীবানু এবং অ্যাসিড তৈরি বন্ধ হয়ে যাবে।

বিশেষজ্ঞরা বলেছেন, সঠিকভাবে যত্ন করলে, সারাজীবনেও দাঁত পড়বে না, বা দাঁতের সমস্যা দেখা দেবে না। জেনে রাখা ভালো, আমাদের কিছু কিছু বদ-অভ্যাস দাঁতের জন্য বড় ধরনের ক্ষতি ডেকে আনতে পারে।

কি কি কারণে দাঁতের ক্ষতি হতে পারে

১. বেশি চাপ দিয়ে দাঁত ব্রাশ করা।
২. আপনার টুথ ব্রাশটি যদি ২ হতে ৩ মাসের মধ্যে নষ্ট হয়ে যায়, তাহলে বুঝতে হবে যে আপনি অতিরিক্ত চাপ বা শক্তি প্রয়োগ করে দাঁত ব্রাশ করেন।
৩. দাঁত ব্রাশ করা একদিকে যেমন আমাদের মুখ পরিস্কার রাখার জন্য অত্যন্ত জরুরি অপরদিকে বেশি শক্তি দিয়ে দাঁত ব্রাশ করা, দাঁতের ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারে।
৪. বেশি বেশি শক্ত খাবার খাওয়া থেকে বিরত থাকতে হবে। সবসময় শক্ত খাবার খেলে দন্তমূলের ওপর বেশি চাপ পড়ে এটি দাঁত ও দুই চোয়ালের হাড়ের জন্য ক্ষতিকর।
৫. ধীরে ধীরে খাবার খাওয়া ও অতিরিক্ত পরিমাণে শক্ত খাবার না খাওয়া দাঁত ঠিক রাখার জন্য বিশেষ সহায়ক।
৬. শুধু এক পাশের দাঁত ব্যবহার করে খাবার খাওয়া থেকে বিরত থাকতে হবে। এ অভ্যাস দাঁতের জন্য ক্ষতিকর। যে পাশের দাঁত সবসময় ব্যবহৃত হয় অন্য পাশের চেয়ে তা বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হবে ও তাতে পাশের চোয়ালের মাংসপেশি বেশি শক্ত হয়ে যায়। এতে করে চেহারাও অসুন্দর লাগে।

যদি আপনাদের দাঁতে এ সমস্যা থাকে তাহলে দ্রুত দন্ত চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। দীর্ঘদিন যে কোনো সমস্যা পুষে না রেখে সময় মতো ব্যবস্থা নিন। দাঁত ভালো থাকলে শরীর ও মন দুই ভালো থাকবে।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...