সড়ক পথে আলো ছড়ায় এমন আলোকিত এক গাছের কাহিনী!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ সড়ক পথে আলো ছড়ায় এমন আলোকিত এক গাছের কাহিনী। আগে কী এমন কোনো গাছের কথা শুনেছেন? আজ আপনাদের জন্য রয়েছে এমন একটি কাহিনী।

Shining a tree story

আমরা জানি রাস্তার দুপাশে থাকা ল্যাম্পপোস্টগুলো রাতভর আলো দেয়। এই আলো আমাদের পথ চলার ক্ষেত্রে রাখে বিশেষ ভূমিকা। যদি ওইসব বিদ্যুৎ ছাড়া এমন কোনো গাছ পাওয়া যায় যেটি রাস্তায় আলো ছড়াবে, তাহলে কেমন হয়? গোটা বিশ্বের মানুষকে এমনই অন্যরকম এক মহাসড়ক দেওয়ার জন্য কাজ করে যাচ্ছেন ডাচ নকশাবিদ ডান রুসাগারডা এবং তার সহযোগিরা। আর তার জন্য বায়োলোমিনেসেন্ট জেলি ও ব্যাকটেরিয়া নিয়ে কাজ করছেন তারা।

এর একটি কারণ হলো, জেলি ফিশ পানির তলায় থাকার পরও এই বায়োলোমিনেসেন্টের গুণেই আপনা আপনি আলো ছড়ায়। আর এই উপাদান দিয়েই ডাচ বৈজ্ঞানিক দলটি বায়োমিনেসেন্ট গাছের বিস্তৃতি ঘটাতে যাচ্ছেন। এই গাছ লাগানোর কারণে বিনা বিদ্যুতে আলোকিত থাকবে পুরো শহর! এই গাছের ধারণাটি কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মাথা হতে আসে। তারা জোনাকি এবং লুমিনেসেন্ট ব্যাকটেরিয়া ‘ভাইব্রিও ফিসচেরি’র জিন নিয়ে আলো উৎপাদনক্ষম এক রকমের এনজাইম তৈরি করেন। তারপর এটিকে জিনোমসের ভিতরে তারা প্রবেশ করান। এটিকে তারা বলছেন, ‘বায়ো ব্রিকস’। আলো উৎপাদনকারী এই গাছের কথা প্রথম আলোচনায় আসে বছরখানেক আগে এক কিকস্টার্টার ক্যাম্পেইনের মাধ্যমে। গবেষক দলের রুসগারডা এই বায়োলুমিসেনথেসিস গাছকে বড় পরিসরে উন্মুক্ত করার জন্য ক্রিচেভেস্কির সঙ্গে একযোগে কাজ করে যাচ্ছেন। তারা সফল হবেন এটিই তাদের বিশ্বাস।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...