তরুণীদের সঙ্গে সেলফি তোলার মাশুল সৌদি অভিনেতার!

Abdul Aziz al-Kassar, who was arrested in Saudi Arabia after he was mobbed by female fans

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ সাম্প্রতিক সময়ে সবচেয়ে জনপ্রিয় বিষয় হলো সেলফি। সেলফি তুলতে গিয়ে প্রায়ই নানা অঘটন ঘটছে। এবার তরুণীদের সঙ্গে সেলফি তোলার মাশুল দিলেন এক সৌদি অভিনেতা!

Abdul Aziz al-Kassar, who was arrested in Saudi Arabia after he was mobbed by female fans

সেলফি তোলার বিষয়টি খুব কম সময়ে জনপ্রিয়তার শীর্ষে উঠে আসে। বর্তমান সময়ে সেলফি এক ফ্যাশনে পরিণত হয়েছে। তবে এই সেলফি নিয়ে অতিরিক্ত মাতামাতির কারণে মাঝে-মধ্যেই ঘটছে দুর্ঘটনা। যেমন সাপ নিয়ে সেলফি তুলতে গিয়ে সাপের কামড়ে হাসপাতালে যেতে হচ্ছে, ট্রেনের ছাদে দিয়ে সেলফি তুলতে গিয়ে এক তরুণীকে প্রাণ দিতে হয়েছে। এমন আরও অনেক ঘটনা ঘটেছে সাম্প্রতিক সময়ে। তবে এবার ঘটনাটি আবার আরেকটু ব্যতিক্রমি। এবার এক সৌদি অভিনেতা তরুণীদের পাল্লায় পড়ে সেলফি তুলতে গিয়ে ঘটলো বিপত্তি। সাদা পোশাকের সৌদি পুলিশ তাকে টেনে হিচড়ে নিয়ে গেলেন।

Saudi actors, young Girl & selfie-2

ঘটনাটি এমন। সৌদি আরবের একটি শপিং মলে গিয়েছিলেন সৌদি আরবের জনপ্রিয় অভিনেতা এবং টিভি উপস্থাপক আব্দুল আজিজ আল- কাসার। এ সময় উপস্থিত তরুণীরা তাকে দেখে ঘিরে ধরে। তিনি তরুণীদের সঙ্গে সেলফি তুলতে গেলে সৌদির ধর্মীয় আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা তাকে টিশার্টের কলার ধরে হিচড়ে নিয়ে যায়।

সম্প্রতি নাখিল শপিং মলে তার উপস্থিতিতে তরুণ-তরুণী ভক্তদের মধ্যে বিপুল উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। জনপ্রিয় ওই তারকার সঙ্গে ছবি ও সেলফি তোলার জন্য কাসারকে ঘিরে ফেলে উপস্থিত তরুণ-তরুণীরা। তখন সাদা পোশাকের সৌদি ধর্মীয় আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য সবার মধ্য হতে কাসারের টিশার্টের কলার ধরে টেনে হিচরে বের করে আনে।

আইন শৃংখলা বাহিনীর সদস্যরা তার ফোন বাজেয়াপ্ত করে একটি রুমে আটকে রাখে। জনগণের মধ্যে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি, তরুণীদের সঙ্গে মেলামেশা করা এবং সামাজিক গণমাধ্যমের অপব্যবহারের অভিযোগে তাকে গ্রেফতার করা হয়। তবে ঘটনার তদন্ত চলা অবস্থায় তাকে জামিনে মুক্তি দেওয়া হয়েছে।

সৌদি গণমাধ্যম বলেছে, শপিং মলে যাওয়ার কয়েকদিন আগেই সামাজিক মাধ্যমে কাসার তার ভক্তদের নিকট জানতে চেয়েছিলেন, ভিজিট করার জন্য কোন শপিং মলটি সবচেয়ে ভালো। তবে টিভিতে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে কাসার বলেন, তিনি বুঝতে পারেননি যে ভক্তদের নিকট হতে এতোটা সংবর্ধনা পাবেন।

কাসার আরও বলেন, আমি বুঝতে পেরেছিলাম যে, আমাকে টেনে বের করেছে যারা তারা কমিশনের সদস্য হবে। কমিশনের প্রতি আমি শ্রদ্ধা দেখিয়ে তাকে বাধা দেইনি।

কুয়েত ও সৌদি আরবে প্রচণ্ড জনপ্রিয় এই অভিনতা কাসার দাবি করেন, আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের উচিৎ ছিল আগে থেকেই মলে থাকা বিপুল সংখ্যক ভক্তদের বিষয়ে তাকে সতর্ক করা।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...