বাঘের মুখ হতে মা রক্ষা করলেন দুই সন্তানকে!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ সন্তানকে রক্ষা করার জন্য জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়তে পারেন কেবল একজন মা। ঠিক এমনই এক ঘটনা। বাঘের মুখ হতে মা রক্ষা করলেন দুই সন্তানকে!

mother of two children saved from a tiger's face

টাইমস অব ইন্ডিয়ার এক খবরে বলা হয়েছে, নিজের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে অসীম সাহসিকতায় বাঘের মুখ হতে দুই শিশু সন্তানকে রক্ষা করলেন এক মা। এই ঘটনাটি ঘটেছে সম্প্রতি ভারতের লখনৌতে কাতারনাইঘাট বন্যপ্রাণী অভয়ারণ্যের অন্তর্গত মতিপুর রেঞ্জের একটি গ্রামে।

ওই প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, অসীম সাহসিকতায় মা তার দুই শিশু সন্তানকে চিতা বাঘের মুখ থেকে রক্ষা করেন। ঘটনাটি ঘটে গত রবিবার সকালে। ওই গ্রামের বাসিন্দা ফুলমতি (৩০) তার ২ মেয়ে গাদিয়া এবং রিচাকে নিয়ে মাঠ দিয়ে আসছিলেন। তখন আচমকা একটি চিতাবাঘ তাদের আক্রমণ করে। সঙ্গে থাকা তার ৪ বছর বয়সী এক মেয়ে শিশুকে টেনে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে ওই চিতাটি। ফুলমতি তখন সাহায্যের জন্য জোরে চিৎকার শুরু করে দেয়। চিৎকারের সঙ্গে সঙ্গে তিনি বাঘটিকে দূরে সরানোর জন্য লাগাতার তার দিকে পাথর ছুড়তে থাকেন।

এমন অবস্থায় অন্তত আধা ঘণ্টা ধরে চলে মানুষ ও বাঘের এই লড়াই। ইতিমধ্যে ফুলমতির এক আত্মীয় তার চিৎকার শুনতে পেয়ে লোকজন নিয়ে ছুটে আসেন। তবে বাঘটিও দমে যাওয়ার নয়। ভয়ে না পালিয়ে বাঘটি উল্টো তাদের ওপর হামলা করতে থাকে। পরে লোকজন দেখে ওই চিতা বাঘটি পালিয়ে যায়। বাঘের হামলায় মা-সন্তানসহ মোট ৪ জন আহত হয়। তাদের স্থানীয় স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তি করা হয়েছে বলে সংবাদ মাধ্যমের খবরে বলা হয়। মায়ের উপস্থিত বুদ্ধি বিশেষ করে চিৎকার করে লোক জড়ো করা ও পাথর ছুঁড়ে মারার কারণে চিতা বাঘটি শেষ পর্যন্ত পরাস্ত হয়।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...