The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

৪ বছরের এক শিশু বুদ্ধি করে মায়ের জীবন বাঁচালো! [ভিডিও]

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ অবাক করার মতো এক কাণ্ড করেছে মাত্র ৪ বছর বয়সের এক শিশু। সে বুদ্ধি খাটিয়ে তার মায়ের জীবন রক্ষা করেছে। ঘটনাটি আমেরিকার ডালাসের।

4-Year-Old Saves His Mother’s Life

সংবাদ মাধ্যমের খবরে বলা হয়, বাড়িতে মায়ের সঙ্গেই ছিল ক্যামডেন ভোগান আর তার অপর শিশু ভাইটি। ক্যামডেনের বয়স ৪ বছর বয়স। দু’জন নিজেদের মতো করে খেলাধুলা করছিল। তাদের মা মিস্টি। তিনি কয়েকদিন যাবত বেশ অসুস্থ। সিরিয়াস কিছু নয়, জ্বর হয়েছে বলে সন্দেহ তার। জ্বর ছিল অনেক। তবে যখন থার্মোমিটারে জ্বর মাপতে গেলেন, তখন অসম্ভব রিডিং চোখে পড়লো তার। তার জ্বর দেখা যাচ্ছে ১০৫.৫ ডিগ্রি ফারেনহাইট! শুধু এটুকুই দেখেই মিস্টি জ্ঞান হারান। এরপর তার ছোট ছেলেটি যে কাজটি করলো, তাতে মায়ের জীবন বাঁচিয়ে দিলো।

জ্ঞান হারানোর পর শিশুটি তার মায়ের ফোনটি তুলে নিলেন। এই মোবাইলেই সে গেমস খেলে। কাজেই পাসওয়ার্ড মনে রয়েছে। নম্বরগুলো ঘাঁটতে ঘাঁটতে সেখানে তার বাবার ছবি সংবলিত নম্বরটি পেয়ে যায় ক্যামডেন। ফটোতে ক্লিক করতেই ফোন চলে যায় তার বাবার কাছে। এরপর সে জানায় তার মায়ের জ্ঞান হারানোর কথা।

4-Year-Old Saves His Mother’s Life-2

বাবা ড. জেরেমি ভোগান বলেছেন, ছেলেটি আমাকে ফোন দিয়ে বললো, বাবা, মা ঘুম হতে উঠতে পারছে না। তার বাবা সঙ্গে সঙ্গে ৯১১ নম্বরে ফোন দিয়ে দেন। তিনি দ্রুত বাড়িতে চলে আসেন। এরপর মিস্টিকে হাসপাতালে নেওয়া হয়। পূর্বে তার জীবনে একবারই সিজার হয়েছিল। হাসপাতালে নেওয়ার পর আরও দুইবার সিজার হয় তার। এখন সুস্থ রয়েছেন তিনি। বর্তমানে বাড়ি ফিরেছেন তিনি।

শিশুটির মা মিস্টি জানালেন, ‘আমার ছেলেরা আমার পৃথিবী। ওদের কাজ-কারবার নিয়ে আমি খুব খুশি। বেশ অবাক লাগে, এই বয়সে দু’জনই অনেক বুদ্ধিমান।’ তথ্য সূত্র: www.littlethings.com

দেখুন ভিডিও

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...