এক ‘ভুলোমনা’ স্বামীর কাণ্ড!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ ভুলোমনা মানুষ ভুল করে কতো কিই না করে। কিন্তু তাই বলে নিজের স্ত্রীকে ভুল করে রেখে চলে যাওয়ার মতো ঘটনা। বেড়াতে গিয়ে নিজের স্ত্রী-কে গাড়িতে তুলতে ভুলে যান এক স্বামী!

a husband's trunk

ভুলোমনা কিংবা আত্মভোলা হওয়ার মতো ঘটনা মাঝে মধ্যেই আমাদের চোখে পড়ে। এমন সমস্যা অনেকেরই রয়েছে। কিন্তু তাই বলে বেড়াতে গিয়ে নিজের স্ত্রী-কে গাড়িতে তুলতে ভুলে যাওয়ার মতো ঘটনা আগে কখনও ঘটেনি।

সম্প্রতি ওল্টার ও ক্লাউডিয়া আর্জেন্টাইন দম্পতি অবকাশ যাপনে যাচ্ছিলেন প্রতিবেশি দেশ ব্রাজিলে। পথে পেট্রোল স্টেশনে গাড়ি থামলে প্রাকৃতিক কাজ সারতে যান ভুলোমনা ওই স্বামী ওল্টার। টয়লেট থেকে ফিরে এসে সোজা গাড়িতে বসে গাড়ি চালিয়ে চলে যান প্রায় ৬০ মাইল পথ। এই এতোটা পথে যাওয়া সত্বেও তার একবারও মনে হয়নি যে, তিনি তার স্ত্রীকে ফেলে এসেছেন পেট্রোল পাম্পে।

ওল্টারের পাশে বসা ছিল তাদের ১৪ বছরের ছেলেও, তবে সেও তো মোবাইলে গেমস খেলায় ব্যস্ত। মা যে গাড়িতে নেই সেটা তার খেয়াল করার সময় ছিল না।

জানা যায়, ওল্টার যখন টয়লেটে যান ঠিক সেই সময় গাড়ির পেছনের আসনে বসা ক্লাউডিয়া নেমেছিলেন নাস্তা কিনতে। গাড়ি পেট্রোল পাম্প ছেড়ে যাওয়ার পর একাধিকবার স্বামীকে ফোন করার চেষ্টা করেন ক্লাউডিয়া। তবে নেটওয়ার্কের কারণে তিনি সেটিও করতে পারেননি। এমন অবস্থায় দু’ঘণ্টা স্থানীয় পুলিশ স্টেশনে স্বামীর জন্য অপেক্ষা করতে থাকেন তিনি।

পুলিশ জানায়, ক্লাউডিয়া এতোটাই ক্ষিপ্ত হয়েছিলেন যে তার স্বামী যখন তাকে নিতে এসেছিলেন তিনি তখন রাগে গাড়িতে লাথি মারেন।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...