আইএসের বিরুদ্ধে রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহারের অভিযোগ তুলেছে যুক্তরাষ্ট্র

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক আন্তর্জাতিক জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেট (আইএস) রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহার করছে বলে অভিযোগ করেছে যুক্তরাষ্ট্রের সেনাবাহিনী।

iso-alleged-use-of-chemical-weapons-against

যুক্তরাষ্ট্র বলেছে, ইরাকের মসুলে রাসায়নিক সমৃদ্ধ রকেট বোমা নিক্ষেপ করছে আইএস। গত মঙ্গলবার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক ঘাঁটিকে লক্ষ্য করে আইএস এই হামলা চালিয়েছে বলে মার্কিন সামরিক কর্তৃপক্ষ সংবাদ মাধ্যমকে নিশ্চিত করেছে।

বিবিসির খবরে বলা হয়, অতিমাত্রায় বেসামরিক মানুষের ক্ষয়ক্ষতি হতে পারে এমন আশঙ্কায় রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহার নিষিদ্ধ করেছে জাতিসংঘ। আইএস নিয়ন্ত্রিত মসুলের নিকটবর্তী কায়ারা বিমান ঘাঁটিতে চালানো এই হামলায় অবশ্য হতাহতের কোনো খবর পাওয়া যায়নি।

যুক্তরাষ্ট্রের জয়েন্ট চিফ অব স্টাফের চেয়ারম্যান ম্যারিন জেনারেল জোসেফ ডানফর্ড বলেছেন, আইএস জঙ্গি গোষ্ঠীর রাসায়নিক বোমা নিক্ষেপের সামর্থ্য রয়েছে। কিন্তু মঙ্গলবারের হামলায় ব্যবহৃত বোমাটি এতোটা শক্তিশালী নয়। এই হামলায় বোঝা যাচ্ছে, আইএস ধীরে ধীরে রাসায়নিক অস্ত্র তৈরির ক্ষেত্রে সমৃদ্ধ হচ্ছে।

উল্লেখ্য, ইরাক ও সিরিয়াতে ব্যবহারের জন্য আইএস রাসায়নিক অস্ত্র তৈরি করছে বলে দীর্ঘদিন ধরেই সন্দেহ করা হচ্ছে।

গত বৃহস্পতিবার জেনারেল ডানফোর্ড মার্কিন সিনেটের সশস্ত্র কমিটিকে বলেছেন, ওই হামলায় আইএস সালফার ও মাস্টার ব্লিস্টার রাসায়নিক উপাদান সমৃদ্ধ রকেট হামলা করেছে। এসব রাসায়নিক উপাদান অঙ্গ, ত্বক, চোখ ও শ্বাসনালীর মারাত্মক ক্ষতিসাধন করতে পারে। মসুল ইরাকের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর হিসেবে খ্যাত। গত দুই বছর ধরে শহরটি রয়েছে আইএসের নিয়ন্ত্রণে।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...