সাদ্দাম হোসেনের প্রাসাদ যাদুঘরে রূপান্তরিত

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ ইরাকের ক্ষমতাচ্যুত প্রেসিডেন্ট সাদ্দাম হোসেন তার ২৪ বছরের শাসনামলে ৭০টিরও বেশি প্রাসাদ নির্মাণ করেছিলেন। তার বসরায় নির্মিত প্রাসাদটি এখন যাদুঘরে পরিণত করা হয়েছে।

saddam-husseins-palace-into-museum

বসরায় নির্মিত প্রাসাদটি এখন যাদুঘরে পরিণত করে ইতিমধ্যে খুলে দেওয়া হয়েছে জনসাধারণের জন্য।

ইরাকের সমৃদ্ধ ইতিহাস ও ঐতিহ্যের ধারক বহু প্রত্নসামগ্রী রাখা হয়েছে এই প্রাসাদে। সাদ্দামের প্রাসাদকে যাদুঘরে রূপান্তরের ধারণাটি প্রথম আসে বসরায় ব্রিটিশ সেনাবাহিনী ও যাদুঘর প্রকল্পের পরিচালক কাহ্তান আল-ওবেইদের নিকট হতে।

এরপর সেখানে যে ব্যাপক সংস্কার কাজ শুরু হয় তার দায়িত্ব দেওয়া হয় ২৭ বছর বয়সী মেহদি আলুসাভির নিকট।

saddam-husseins-palace-into-museum-2

বিগত ৩ বছর ধরে তিনি প্রাসাদটির ধোয়ামোছা, মেরামত ও চুনকামের কাজে তদারকি করেন। ব্রিটিশ সেনাবাহিনী যখন বসরায় মোতায়েন ছিল তখন এই প্রাসাদটি তাদের ঘাঁটি হিসেবে ব্যবহার করা হয়।

ইরাকে বিদ্রোহী দলগুলো ভবনটি লক্ষ্য করে বহুবার হামলা চালানোর কারণে প্রাসাদটির মারাত্মক ক্ষয়ক্ষতি সাধিত হয়।

saddam-husseins-palace-into-museum-3

মেহদি আলুসাভি বলেন, ”এই কাজের দায়িত্ব নেওয়ার জন্য আমাকে যখন বলা হলো তখন আমার মনে বেশ দ্বিধা-দ্বন্দ ছিল। কারণ বহু নিরপরাধ মানুষের রক্ত লেগে রয়েছে এই প্রাসাদে,’’
তিনি বলেন, ”কিন্তু যেদিন প্রাসাদটি জনগণের জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হলো, সেদিন আমি আনন্দে কেঁদে ফেলেছিলাম।”

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...